বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ১৭

অ-হিন্দু ডেলিভারি বয়: খাবার ফিরিয়ে বিতর্কে, সাম্প্রদায়িক মন্তব্য চালালে এবার জেল, এল আইনি নোটিশ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মধ্যপ্রদেশের জ়োম্যাটো ডেলিভারি বয় কেন হিন্দু নন, তাই খাবার নিতে অস্বীকার করেছিলেন পণ্ডিত অমিত শুক্লা।  এবার অমিতের কাছে একটি নোটিশ পাঠালো মধ্যপ্রদেশ পুলিশ।  সেই নোটিশে পরিষ্কার বলা আছে আগামী ৬ মাসে অমিত এমন কোনও মন্তব্য যদি করেন, যাতে কারও ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত লাগে, দেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিতে কোনও বাজে প্রভাব ফেলে, তাহলে তাঁকে সোজা জেলে পুরে দেওয়া হবে।

শ্রাবণ মাসের উপোস চলছে বলে অমিত শুক্লা বলেছিলেন অ-হিন্দু ডেলিভারি বয়ের হাত থেকে তিনি খাবার নেবেন না।  তাতে তাঁর খাবারের দাম ফিরিয়ে না দিতে চাইলেও কোনও সমস্যা নেই।  মঙ্গলবার সোশ্যাল মিডিয়ায় এই পোস্ট তিনি প্রকাশ্যে আনার পরেই সমালোচনার ঝড় ওঠে।  কিন্তু অমিত তাঁর যুক্তিতে অনড় ছিলেন।

জ়োম্যাটোর পক্ষ থেকে সোজা সাপ্টা বলা হয়েছিল, খাবারের কোনও ধর্ম থাকে না, তাই তাঁর আব্দার তাঁরা মেটাতে পারছেন না।  জ়োম্যাটো কোনও অভিযোগ দায়ের করেনি পুলিশের কাছে, কিন্তু মধ্যপ্রদেশ পুলিশ ঘটনার তাৎপর্য বুঝেই সুয়োমোটো বা নিজে থেকে আইনি নোটিশটি পাঠিয়েছে অভিযুক্ত অমিতের ঠিকানায়।  এরপরেও অমিতের বক্তব্য, তিনি কোনও অপরাধ করেননি, তাই তাঁর এসবে কিছু যায় আসে না।

জব্বলপুরের জেলা পুলিশ সুপারিনটেনডেন্ট অমিত সিং বলছেন, “এখন কড়া নজর থাকবে অমিত শুক্লার উপর।  এ ধরণের কোনও আচরণ যদি তিনি করেন, যা সংবিধানকেও ধাক্কা দিচ্ছে, তাহলে অবশ্যই তাঁকে জেলে ভরে দেওয়া হবে। ”

এখন দেখার এই ঘটনার পরেও অমিতের মতো মানুষের মধ্যে কোনও পরিবর্তন আসে, না তাঁদের শ্রীঘরেই ঠাঁই হয়! যদিও সে উত্তর সময়ই দেবে।

Comments are closed.