শুক্রবার, এপ্রিল ২৬

পরপর বাংলা টুইট, ‘স্বামী রামকৃষ্ণ’ লিখে হাসির পাত্র হলেন যোগী আদিত্যনাথ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রাজনীতিক হোক বা বলিউড তারকা– নানা সময়ে নানা অবাঙালি সেলিব্রিটির মুখে দু’কলি বাংলা ভাষা শোনা গিয়েছে নানা সময়ে। বিশেষ করে যখন তাঁরা বাংলার মাটিতে পা রেখেছেন। তাঁদের ভাঙা ভাঙা বাংলা শুনে উদ্বেল হয়েছেন শ্রোতা-দর্শকেরা। বলিউড বাদশা শাহরুখ খান থেকে শুরু করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী– কেউই বাদ নেই যিনি এই বাংলা ভাষার মিষ্টতায় মজেননি।

বাংলার মানুষের মন জয় করতে সেই একই পথ অনুসরণ করেছিলেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথও। কিন্তু তা করতে গিয়েই বড়সড় ভুল করে বসলেন তিনি। খোরাকের পাত্র হলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। মঙ্গলবার পুরুলিয়ায় সভা করার আগে বাংলায় টুইট করে বঙ্গবাসীকে শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে এক জায়গায় ‘স্বামী রামকৃষ্ণ’ লিখে বসেন তিনি। সেখানেই ওঠে প্রতিবাদের ঝড়। কেউ কেউ লেখেন, স্বামী রামকৃষ্ণ কে আবার? রামকৃষ্ণ পরমহংসদেব বলে শুনেছি।

হেলিকপ্টার জটে রায়গঞ্জ-বালুরঘাটে যোগীর সভা বাতিল হয়েছিল আগেই। বাঁকুড়াতেও একই সমস্যা হয়। শেষমেশ পুরুলিয়ার সভায় তিনি আসেন সড়কপথেই।  তৃণমূল সরকারেকে চড়া ভাষায় আক্রমণও করেন তিনি।

তবে টুইট বিতর্ক রয়েই গিয়েছে। সভার আগে একাধিক টুইট করেন তিনি। “প্রথম টুইটে উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী লেখেন, ‘‘গৌরবময়,মহিমান্বিত অতীত এবং অসাধারণ সম্ভাবনায়  ভরা বাংলার জন্মভূমিকে আমার আন্তরিক অভিনন্দন, যেখানে স্বামী রামকৃষ্ণ ও স্বামী বিবেকানন্দের পবিত্র চরণ পতিত হয়েছিল, সেইখানে জনসংঘের প্রতিষ্ঠাতা শ্যামা প্রসাদ মুখার্জির জন্মস্থান।’’

এর পরে আরও একটি টুইটে যোগী লেখেন, ‘‘আজ দুঃখের বিষয় যে, আমাদের বঙ্গ আজ মমতা ব্যানার্জী ও তার সরকারের বিশৃঙ্খলার কারণে ভুগছে, এখন সময় এসেছে যে, শক্তিশালী গণতান্ত্রিক আন্দোলনের মাধ্যমে সংবিধান রক্ষা করার জন্য পশ্চিমবঙ্গকে এই সরকার থেকে মুক্ত করা উচিত৷”

তিন নম্বর বাংলা টুইটিতে তিনি লেখেন, ‘‘এবং সেই কারণে আজ আমি পুরুলিয়ায় আপনাদের সকলের মাঝে এই আন্দোলনের পতাকা নিয়ে দুর্নীতির জোটের বিরুদ্ধে দাঁড়াব।’’

আরও পড়ুন…

কপ্টার নামল বোকারোয়, সড়ক পথে এসে যোগীর সভা পুরুলিয়ায়, ভিড় ভালোই

Shares

Comments are closed.