মঙ্গলবার, মার্চ ১৯

আমরা তো চুপ ছিলাম, পাকিস্তানই কান্নাকাটি শুরু করল, বালাকোট নিয়ে মন্তব্য মোদীর

দ্য ওয়াল ব্যুরো : গত কয়েকদিনে নানা মহল থেকে অভিযোগ উঠেছে, পাকিস্তানের বালাকোটে জঙ্গি ঘাঁটিতে বায়ুসেনার আক্রমণ নিয়ে ভোটে ফয়দা তুলতে চাইছে বিজেপি। এরপর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী শনিবার বলেন, বায়ুসেনার অভিযানের পরে আমরা তো চুপ করে ছিলাম। পাকিস্তানই তো ভোর পাঁচটা থেকে কান্নাকাটি শুরু করল। অর্থাৎ তিনি বলতে চেয়েছেন, পাকিস্তানই প্রথমে বালাকোটে বিমান হানার কথা প্রচার করেছে।

ভারতের সেনা পাকিস্তানকে পুরোপুরি চমকে দিয়েছে বলে দাবি করেন মোদী। তিনি বলেন, পুলওয়ামায় হামলার পরে পাকিস্তান ভেবেছিল, উরির মতো আর একটি সার্জিক্যাল স্ট্রাইক হবে। সেইমতো তারা প্রস্তুতিও নিয়েছিল। কিন্তু আমরা এবার আকাশপথে হানা দিয়েছি।

উত্তরপ্রদেশের নয়ডায় এক জনসভায় তিনি বলেন, সার্জিক্যাল স্ট্রাইক হওয়ার পরে আমরা সারা দেশকে জানিয়েছিলাম কী হয়েছে। কিন্তু পুলওয়ামার ঘটনার পরে আমরা চুপ করেছিলাম। ভোর পাঁচটায় পাকিস্তানই প্রথম কান্নাকাটি শুরু করল। তারা বলতে লাগল, ‘মোদী নে মারা’, ‘মোদী নে মারা’!

বিরোধীদের কটাক্ষ করে তিনি বলেন, এমন অনেক লোক আছে যারা ভারতের খায় কিন্তু এমন বিবৃতি দেয় যাতে পাকিস্তানের সুবিধা হয়। সৈনিকদের প্রশংসা করে তিনি বলেন, পুলওয়ামার ঘটনার পরে যা হয়েছে, তা গত কয়েক দশকে হয়নি। সেনাবাহিনী সরাসরি সন্ত্রাসবাদী ও তাদের মদতদাতাদের আঘাত করেছে।

১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় জঙ্গি হানায় ৪০ জনের বেশি সিআরপিএফ জওয়ান নিহত হন। তারপরে ভারতের বায়ুসেনা পাকিস্তানের অভ্যন্তরে ঢুকে বালাকোটে জঙ্গি শিবিরের ওপরে বোমা ফেলে আসে। সরকারের দাবি, বোমায় কয়েকশ জঙ্গি মারা গিয়েছে। কিন্তু কয়েকটি আন্তর্জাতিক মিডিয়া জঙ্গিমৃত্যু নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করে। বিজেপির মন্ত্রীরাও জঙ্গিদের মৃত্যু নিয়ে পরস্পর বিরোধী মন্তব্য করেন। বায়ুসেনা স্পষ্ট জানিয়ে দেয়, কতজন মারা গিয়েছে, তা গোনা তাদের কাজ নয়।

এই অবস্থায় সরকারের সমর্থনে নামে বিজেপি। তাদের বক্তব্য, যাঁরা জঙ্গি মৃত্যুর প্রমাণ চাইছেন, তাঁরা নিজেদের দেশের সরকারের চেয়ে পাকিস্তানের সরকারকেই বিশ্বাস করেন বেশি। তাঁরা যে সব বিবৃতি দিচ্ছেন, সেগুলি পাকিস্তানের মিডিয়ায় ফলাও করে প্রচারিত হচ্ছে। এভাবে তাঁরা শত্রু দেশকে সাহায্য করছেন। অন্যদিকে বিরোধীদের অভিযোগ, বালাকোটের ঘটনা নিয়ে রাজনীতি করা হচ্ছে।

মোদীও এদিন বলেছেন, বায়ুসেনার আক্রমণ নিয়ে ভোটে ফয়দা তোলার ইচ্ছা বিজেপির নেই। পাকিস্তানই প্রথমে ভারতের বায়ুসেনার আক্রমণের কথা বলেছে।

Shares

Comments are closed.