রবিবার, নভেম্বর ১৭

সৌরভের ঘরে ঢুকে চমকে গিয়েছিলাম,  নিজের অভিজ্ঞতার কথা শোনালেন লক্ষ্মণ 

দ্য ওয়াল ব্যুরো: শনিবারই ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের নতুন সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে একটি অনুষ্ঠানে মিলিত হয়েছিলেন ভিভিএস লক্ষ্মণ ও মহম্মদ আজহারউদ্দিন। সেই অনুষ্ঠানেই সিএবি দফতরে সৌরভের ঘরের কথা উল্লেখ করেন লক্ষণ।
সেটা ২০১৪ সাল। সৌরভ তখন সবে বাংলার ক্রিকেট নিয়ামক সংস্থার যুগ্মসচিব হয়েছেন। সেই সময়ে সিএবি লক্ষ্মণকে ডেকে এনেছিল বাংলা দলের ব্যাটিং পরামর্শদাতা হিসেবে। আলাপচারিতায় লক্ষ্মণ জানিয়েছেন, ওই সময়ে সৌরভের ঘরে ঢুকে চমকে গিয়েছিলেন তিনি।
তিনি বলেন, “একটা ছোট্ট ঘরে ঢুকে দেখি সৌরভ বসে রয়েছেন। ওইটুকু একটা ঘর! এটা দেখেই আমি চমকে গিয়েছিলাম। দাদা ভারতীয় ক্রিকেটের অন্যতম সফল অধিনায়ক। তাঁর কিনা এইটুকু ঘর!” তাঁর কথায়, “পরে বুঝেছি,  খেলা আর ক্রিকেট প্রশাসনকে গুলিয়ে ফেলেননি সৌরভ। প্রশাসকের কাজটা শুরু করেছিলেন ইডেনের ওই ছোট্ট ঘর থেকে। আর আজ তিনি বিসিআই সভাপতি। বিরাট ঘর। সামনের কাচ দিয়ে আরব সাগর।”
সৌরভের সঙ্গে লক্ষ্মণের সম্পর্ক বরাবরই ভাল। খেলা ছাড়ার পরও তা বদলায়নি। শনিবার দরাজ গলায় সৌরভের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হলে ভিভিএস। বললেন, “সৌরভ জানেন কী ভাবে হাল ধরতে হয়। আমি আশা করি সৌরভ ক্যাপ্টেনের মতোই বোর্ড চালাবেন।”
সভাপতি হওয়ার পর সৌরভ নিজেই বলেছিলেন ক্যাপ্টেনের মেজাজেই বোর্ড চালাবেন। লক্ষ্মণের গলাতেও শোনা গেল সেই সুর। লক্ষ্মণ ও অনুষ্ঠানে দাদার পিঠে হাত রেখে বলেন, “এই মানুষটা ভাঙা জিনিস জোড়া লাগাতে পারেন। আমি খুব সামনে থেকে সেটা প্রত্যক্ষ করেছি।” সন্দেহ নেই ভারতীয় ক্রিকেট দলে ‘টিম ইন্ডিয়ার’ স্পিরিট ফেরানোর কথা বলেছেন লক্ষ্মণ। লক্ষ্মণের প্রশংসার পর নয়া বোর্ড সভাপতি বলেন, “আমি চেষ্টা করব সবার ভরসার মর্যাদা রাখার। আশা করি পারব। ক্যাপ্টেন হিসেবেও ভাল টিম পেয়েছিলাম। এখানেও আমার টিমটা ভীষণ মজবুত।”

পড়ুন ‘দ্য ওয়াল’ পুজো ম্যাগাজিন ২০১৯–এ প্রকাশিত গল্প

Comments are closed.