বৃহস্পতিবার, জুন ২০

না জন্মানো বোনের ঋতুস্রাব হয় ভেরোনিকার পেট থেকে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দু’টি ভ্রূণ একই সঙ্গে বেড়ে উঠেছিল মায়ের গর্ভে। কিন্তু পূর্ণাঙ্গ শরীরে জন্ম নিল এক জন। অন্য জন অদ্ভুতভাবে লেগে রয়ে গেল জন্ম নেওয়া জমজ বোনের পেটে উঁচু হয়ে। এই অবস্থায় পেরিয়েছে ১৪ বছর। ঋতুমতী হয়েছে জন্ম নেওয়া বালিকা ভেরোনিকা। সেই সঙ্গেই ঋতুমতী হয়েছে, তার পেটে লেগে থাকা যমজ বোনও! আর সেই ঋতুরক্তই বেরিয়ে আসে ভেরোনিকার পেট থেকে!

ফিলিপিন্সের লিগান সিটির এই ঘটনায় বিস্মিত চিকিৎসকেরা। এ বার অস্ত্রোপচার করে ভেরোনিকার না-জন্মানো বোনকে ভেরোনিকার শরীর থেকে আলাদা করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন তাঁরা।

ছোটোবেলায় ভেরোনিকা ভাবত, তার পেটে দু’টি অতিরিক্ত পা রয়েছে। কিন্তু বড় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বুঝতে পারে, এগুলি হাত। কারণ হাতের মতোই আঙুল আছে তাতে, এবং নিয়মিত নখও কাটতে হয়। সাধারণ পোশাকআশাক পরতে বেশ অসুবিধা হয় ভেরোনিকার। আরও অসুবিধা হয়, মাঝে মাঝেই পেটের থেকে ঝুলন্ত ওই অদ্ভুত দর্শন অঙ্গটি থেকে তরল পদার্থ বেরিয়ে আসে। প্রস্রাব করে ফেলে বোন, লজ্জায় পড়তে হয় ভেরোনিকাকে।

ভেরোনিকার মা জানিয়েছেন, তাঁদের পরিবারে বহু যমজ সন্তান হয়েছে। গর্ভাবস্থায় তিনি ডাক্তারের কাছেও যাননি। তিনি বুঝতেই পেরেছিলেন, তাঁর যমজ সন্তান হতে চলেছে। তাই তিনি সন্তানদের জন্য দু’টি নামও ভেবে রেখেছিলেন। কিন্ত ভাবতেও পারেননি, এক সন্তান পুষ্ট হবে না এবং অপর সন্তান ভেরোনিকার শরীরের সঙ্গে জুড়ে থাকবে।

ভেরোনিকার মা জানিয়েছেন, ভেরোনিকার শরীরে জুড়ে থাকা অন্য সন্তানের অঙ্গগুলি থেকে যে তরল পদার্থ বেরোয়, তার গন্ধ প্রস্রাবের মতোই। মাঝে মাঝে তাতে রক্তও মিশে থাকে, যেটা তাঁর মনে হয় ঋতুস্রাব।

চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, এই সপ্তাহেই ভেরোনিকার শরীরে অস্ত্রোপ্রচার হবে। তার বোনের অঙ্গগুলি যেহেতু চামড়া ও হাড়ের উপরে লেগে রয়েছে, তাই অস্ত্রোপ্রচারে তেমন আশঙ্কার কোনও কারণ নেই।

ভেরোনিকার জীবনযাত্রায় সমস্যা থাকলেও অনান্য দিকে কোনও ঘাটতি নেই। বরং সে খুবই স্মার্ট ও বুদ্ধিমতী মেয়ে। হাসপাতালের সবাই তাকে ভালোবেসে ফেলেছে। সবাই তাকে এই সপ্তাহেই নতুন ভাবে দেখতে চায়। তারই জন্য চলছে প্রস্তুতি।

Leave A Reply