কিশোরীর শ্লীলতাহানি আজমগড়ে, বাধা দেওয়ায় ছাদ থেকে ফেলে দেওয়া হল ধাক্কা দিয়ে

৫৬৯

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

দ্য ওয়াল ব্যুরো: শ্লীলতাহানির থেকে বাঁচতে, প্রতিবাদ করায় এক কিশোরীকে ছাদ থেকে ঠেলে ফেলে দিল তিন যুবক! ১৫ বছর বয়সের এই কিশোরী গুরুতর আহত অবস্থায় এখন হাসপাতাটালে ভর্তি।

পুলিশ জানিয়েছে, উত্তরপ্রদেশের আজমগড়ের ঘটনায় অভিযুক্ত তিনটি ছেলে ও আহত মেয়েটি একই এলাকার বাসিন্দা। এক পুলিশকর্তার কথা, “শুক্রবার সন্ধেবেলায় মেয়েটি একা বাড়ি ফিরছিল। সেই সময় শাকিল, জুনয়েদ আর তাদের এক বন্ধু জোরজবরদস্তি করে মেয়েটিকে একটা বাড়ির ছাদে নিয়ে যায়। তারা হেনস্থা করতে শুরু করে মেয়েটিকে, অভব্য আচরণ করে। প্রতিবাদ করায় মেয়েটিকে তারা সেখান থেকে নীচে ঠেলে ফেলে দেয়।”

এই ঘটনার সঙ্গে সঙ্গে আরও একবার প্রশ্ন উঠে গেল উত্তরপ্রদেশের নারীনিরাপত্তা নিয়ে। গত কয়েক মাসে একের পর এক এমন ঘটনা সামনে এসেছে। কোথাও গণধর্ষিতা হয়েছে মেয়েরা, কোথাও বা খুনও হতে হয়েছে।

আজমগড়ের এসপি সুশীল ধুলে জানান, “মেয়েটিকে ছাদে নিয়ে যাওয়ার পরে ওই যুবকরা মারধরও করে বলে জানা গেছে। তখনই সে গুরুতর জখম হয়। মেয়েটি এখন আজমগড়ের এক হাসপাতালে ভর্তি আছে। চিকিৎসা চলছে।”

পরের দিন অর্থাৎ শনিবার মেয়েটির পরিবার স্থানীয় থানায় অভিযোগ জানালে সমস্তটা জানাজানি হয়। সেই দিনই ছেলে তিনটিকে গ্রেফতার করা হয়।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like
Comments
Loading...

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More