বুধবার, অক্টোবর ১৬

দেউলিয়া থমাস কুক, উঠেই গেল দেড় শতকের পুরনো ব্রিটিশ ট্রাভেল এজেন্সি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: অর্থনৈতিক সংকট জাঁকিয়ে বসেছিল গত কয়েক বছর ধরেই। তবু সংস্থার তরফে চেষ্টা চালিয়ে যাওয়া হচ্ছিল পুনরুজ্জীবীত করার। কিন্তু শেষ রক্ষা হল না। নিজেদের দেউলিয়া ঘোষণা করে দিল ব্রিটিশ ট্রাভেল এজেন্সি থমাস কুক। নিজেদের দেউলিয়া হিসেবে ঘোষণা করেছে তারা।

এই ঘটনায় যেমন বিশ্বজুড়ে ওই সংস্থায় কর্মরত ২২ হাজার কর্মচারীর কাজ গিয়েছে, তেমনই দুনিয়া জুড়ে দুর্ভোগে পড়েছেন কয়েক লক্ষ পর্যটক। তাঁরা এখন কী করবেন বুঝে উঠতে পারছেন না। আগেই নিজেদের বিমান পরিষেবার ঝাপ বন্ধ করে দিয়েছিল থমাস কুক। এ বার গোটা  সংস্থাটাতেই জ্বলে গেল লালবাতি।

থমাস কুকের বন্ধ হয়ে যাওয়াকে শুধু অর্থনীতির দৃষ্টিভঙ্গি থেকে দেখতে চাইছেন না বহু পর্যটক। তাঁদের মতে, এই সংস্থা উঠে যাওয়া মানে বিশ্ব পর্যটনের দেড় শতকের ঐতিহ্যে আঘাত। ১৮৪১ সালে পথ চলা শুরু। ব্রিটেনের বিভিন্ন শহর ট্রেনে করে ঘুরিয়ে দেখানো দিয়ে শুরু হয়েছিল থমাস কুকের পথ চলা। তারপর ১৭৮ বছর ধরে সারা বিশ্বের পর্যটকদের অন্যতম ভরসার ব্র্যান্ড হয়ে উঠেছিল এই ব্রিটিশ সংস্থা।

সংস্থার পুনরুজ্জীবনের জন্য প্রয়োজন ছিল আড়াই কোটি মার্কিন ডলার। ভারতীয় মুদ্রায় সাড়ে সতেরশো কোটি টাকা। ব্যক্তিগত পুঁজিপতিদের বিনিয়োগেরও চেষ্টা করা হয়েছিল। কিন্তু তা শেষমেশ দানা বাঁধেনি। শুধু মাত্র ব্রিটেনেই থমাস কুকের ৬০০ স্টোর ছিল।

ব্রেক্সিস্টের পর থেকেই অর্থসঙ্কট ক্রমশ বাড়ছিল। এ বার এক ধাক্কায় বন্ধ হয়ে গেল দেড়শো বছরের বেশি প্রাচীন থমাস কুক।

Comments are closed.