সোমবার, অক্টোবর ১৪

মাত্র দশটা ফলে ভরসা রেখেই ওজন কমান চটজলদি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আপনার কি খুব ভাজাভুজি খেতে ইচ্ছে করে? আবার ওজন বেড়ে গেলে দুঃখও হয়? কিন্তু দুটো বিষয় যে সমানুপাতিক, তা নিশ্চয় আপনার জানা? তাহলে কী করবেন? সারাদিন হরিমটর তো চলতে পারে না। শরীরটা তো রাখতে হবে। আপনাদের মুশকিল আসান করতে পারে এমনই ১০ টা ফলের নাম জেনে নিন। এতে আপনার পেট ভর্তিও থাকবে, আবার ওজনও থাকবে নিজের আয়ত্তে।
শশা
শশা খেলে আপনার পেট অনেকক্ষণ ভর্তি থাকবে।ফলে খিদে পাওয়ার সমস্যা থেকে মুক্তি। তাছাড়াও ১০০ গ্রাম শশায় মাত্র ১৬ ক্যালোরি থাকে, তাই ওজন বেড়ে যাওয়ার সমস্যা নেই। তাছাড়াও প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আর বেশিরভাগই জল থাকে, এছাড়া থাকে ভিটামিন সি, কে এবং বি সিক্স। তাই যত বেশি শশা খাবেন, আপনার স্কিনের জেল্লা বাড়বে। আর ওজনও কম থাকবে।

পেঁপে
পেঁপেতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট, ভিটামিন সি, ভিটামিন এ ওজন কমাতে বেশ সাহায্যই করে। ১০০ গ্রাম পেঁপেতে ৪০ ক্যালোরি থাকে। ফলে আপনারই লাভ। ওজন কমাতে চাইলে ব্রেকফাস্টে পেঁপে খান। কাজ পাবেন তাড়াতাড়ি।

পিচ
ভিটামিন সি, ই, এ, কে যথেষ্ট পরিমাণে পাবেন এতে। এছাড়াও প্রয়োজনীয় ফাইবার থাকে। তাই আপনার কোলেস্টরল থাকে নিয়ন্ত্রণে, আর অবশ্যই ওজন বাড়ে না সহজে। এতে থাকা ভিটামিন কে থেকে আসা ক্যারোটিন আপনার চুলও খুব সুন্দর রাখে। তাই উপকার পেতে পিচ খেতে শুরু করুন আজই। ১০০ গ্রাম পিচে পাবেন ৩৫ ক্যালোরি, তাই আপনার পক্ষে বেশি করে পিচ খাওয়ায় ক্ষতি নেই কোনও।

বাতাবি লেবু
ভিটামিন সি আর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যে ফলেই পাবেন, তাকে আপন করে নিতে দু মিনিটও ভাববেন না। কারণ এরা আপনার ওজন তাড়াতাড়ি কমিয়ে দেয়। বাতাবি লেবুতে আপনি পাবেন এই দুই উপাদানই। ১০০ গ্রাম বাতাবি লেবুতে আপনি পাবেন ৩৭ ক্যালোরি। আর এতে জলীয় অংশও অনেকটা থাকায় আপনার পেট থাকবে ভর্তি, আর ওজন থাকবে কম।

টোম্যাটো
১০০ গ্রাম টোম্যাটো খেতে পারেন রোজই,তাতে মাত্র ২৫ ক্যালোরি পাবে আপনার শরীর। ফলে পেটও ভরল, আবার ওজনও বাড়ল না। এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আপনার মোটা হওয়া আটকাতে লেপ্টিনের সাথে কার্যত যুদ্ধ করে। ফলে ভরসা রাখুন টোম্যাটোতে।

স্ট্রবেরি১০০ গ্রাম স্ট্রবেরি খেলে মাত্র ৩০ ক্যালোরি যাবে আপনার শরীরে, তাই দৌড়ে, ঘাম ঝরিয়ে ওজন কমানো থেকে মুক্তি পাওয়া সহজ হবে। একে ফলের রানীও বলা হয় এর প্রাকৃতিক মিষ্টত্বের জন্য। এতে থাকা ভিটামিন সি এবং সঙ্গের বি সিক্স আপনার পেটের মেদ কমাতে খুব সাহায্য করে। এবার নিশ্চয় মনে হচ্ছে গুপ্তধন হাতে পেলেন? দেরি করবেন না আর, বাজার থেকে কিনে ফেলুন স্ট্রবেরি।

তরমুজ
ওজন কমানোর ক্ষেত্রে তরমুজ আপনার বেস্টফ্রেণ্ড হতেই পারে। এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আপনার শরীরের জলীয় অংশের ভারসাম্য বজায় রাখে।ভিটামিন সি-র ভালো উৎস তরমুজ।১০০ গ্রাম তরমুজে থাকে মাত্র ৩০ ক্যালোরি, তাই ওজন কমানোর ক্ষেত্রে আঁকড়ে ধরুন এই ফলকে।

ন্যাশপাতিওজন বাড়ার সাথে যুদ্ধ হোক বা কোলেস্টরল কমানোয় সহায়তা করা, ন্যাশপাতি খুবই কাজে আসে। ভিটামিন সি তে ভরপুর এই ফলটি সহজেই আপনার স্কিনেরও যত্ন নিয়ে নেয়। তাই ১০০ গ্রাম ন্যাশপাতিতে থাকা ৩৪ ক্যালোরি আপনার রোজের খাদ্য তালিকায় জায়গা পেতেই পারে।

চেরি
১০০ গ্রাম চেরিতে মাত্র ৫০ ক্যালোরি পান আপনি। সঙ্গে পান অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। তাই ওজন কমানো অনেক সহজ পথের মধ্যে এটাও একটা হাতিয়ার।

আপেল
পেটের নাছোড়বান্দা মেদ থেকে রেহাই পেতে চাইলে আপেল খান রোজ। এতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এটুকু সাহায্য করে আপনাকে। তার সঙ্গে কোলেস্টরল কমিয়ে দেয় অনেকটাই। ১০০ গ্রাম আপেল থেকে আপনি পেতে পারেন মাত্র ৪৫-৫০ ক্যালোরি। তাই সহজলভ্য এই ফল রোজ খান একটা করে।

অতএব এসব ফলের উপর ভরসা করে ওজন কমানোর চেষ্টা করতে পারেন। অযথা নিজেকে উপোসি রেখে ওজন কমানোর চেষ্টা করে অসুস্থ হয়ে পড়বেন না। উপায় যখন রয়েছে, তখন বাজারের ব্যাগ ভরুন এই ফলগুলো কিনে।

Comments are closed.