সোমবার, সেপ্টেম্বর ১৬

মেয়েরা সাবধান! যৌন জীবনের গোপন কথাও জেনে যাচ্ছে ফেসবুক

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আপনার খুব কাছের বন্ধুও হয়তো জানে না শেষ কবে আ‌পনি যৌন সঙ্গম করেছেন। কিন্তু জানে ফেসবুক। জানে যদি আপনার মোবাইলে দু’টি অ্যাপ থাকে। দু’টি অ্যাপ আপনার যৌন জীবনের যাবতীয় খুঁটিনাটি জানিয়ে দেয় ফেসবুককে। এমন মারাত্মক খবর জানিয়েছে ব্রিটেনের সংবাদমাধ্যম ‘দ্য টেলিগ্রাফ’। ওই খবরে দাবি করা হয়েছে, ‘মায়া’ এবং ‘এমআইএ ফেম’ নামের দু’টি অ্যাপ এই গোপন খবর ফাঁস করার কাজ করছে। আর যাঁরা এই দু’টি অ্যাপ ব্যবহার করেন তাঁদের কোনও গোপন কথাই আর রবে না গোপনে।

‘মায়া’ এবং ‘এমআইএ ফেম’ নামের অ্যাপ দু’টি মেনস্ট্রুয়েশন ট্র্যাকিং-এর কাজ করে। এই অ্যাপে যাবতীয় গোপন কথাই জানাতে হয়। আর সেই সব তথ্যই ফেসবুক ও অন্যান্যদের কাছে ফাঁস করে দিচ্ছে এই দুই অ্যাপ। এমনটাই জানিয়েছে ব্রিটেনের গোপনীয়তা বিষয়ক তদন্ত সংস্থা প্রাইভেসি ইন্টারন্যাশনাল।

কিছু দিন আগেই নিউইয়র্কের অ্যাটর্নি জেনারেল ফেসবুক কতটা নিরাপদ তা নিয়ে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। আর তার মধ্যেই সামনে এল এই খবর।

অভিযুক্ত অ্যাপ দু’টিতে ব্যবহারকারীদের অনেক গোপন কথাই জানাতে হয়। কবে কবে তিনি যৌন সঙ্গম করছেন, কবে ঋতুচক্র শুরু হয়েছে, কোন ধরনের কনট্রাসেপটিভ ব্যবহার করেছেন ইত্যাদি তো বটেই সেই সঙ্গে ব্যবহারকারীর মুড, যৌনেচ্ছা ইত্যাদিও জানাতে হয়। প্রাইভেসি ইন্টারন্যাশনাল জানতে পেরেছে, কোনও ব্যবহারকারী অ্যাপ ব্যবহারের একেবারে শুরুতেই এই সব তথ্য দিয়ে দেন। প্রাইভেস পলিসি সাইন করানোর আগেই এই সব তথ্য দিতে হয়। এভাবেই তৈরি করা হয়েছে অ্যাপ দু’টি। আর তথ্য পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই সেই সব তথ্য ফেসবুককে সরবরাহ করা হয়। অর্থাৎ, যাঁরা ওই অ্যাপ ব্যবহার করেন না কিন্তু একটি বারের জন্য ওপেন করেছেন তাঁদের তথ্যও ফেসবুকের কাছে চলে যায়। মূলত ডেটা অ্যানালিসিস ও সেই মতো বিজ্ঞাপন পাওয়ার জন্যই এই তথ্য দেওয়া হয় বলে জানিয়েছে প্রাইভেসি ইন্টারন্যাশনাল।

তবে এই ব্যাপারে ফেসবুকের পক্ষে মুখপাত্র জো ওসব্রোন জানিয়েছেন, ফেসবুক তার বিজ্ঞাপনের জন্য কোনও থার্ড পার্টির থেকে তথ্য নেয় না। আর বিজ্ঞাপনদাতার তাদের পছন্দ জানালে সেই মতো ব্যবহারকারীদের কাছে পাঠানো হয় বিজ্ঞাপন। এর জন্য কোনও বিজ্ঞাপনকারীর কাছে কোনও তথ্য দেওয়া হয় না।

Comments are closed.