সোমবার, সেপ্টেম্বর ১৬

সন্ত্রাসবাদের বিপদ সারা বিশ্বেই, পাকিস্তানকে পরোক্ষে সতর্ক করে দিলেন মোদী

দ্য ওয়াল ব্যুরো : সন্ত্রাসবাদ ও পাকিস্তান। আমেরিকায় ৯/১১-র জঙ্গিহানার ১৮ বছর পূর্তি উপলক্ষে দু’টি শব্দ একইসঙ্গে উচ্চারণ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তিনি বলেন, সন্ত্রাসবাদ এখন সারা বিশ্বের কাছেই বিপদ। তাদের মতাদর্শের ভিত্তি রয়েছে আমাদের প্রতিবেশী দেশে। সেদেশে সন্ত্রাসবাদের বাড়বাড়ন্ত হয়েছে। একইসঙ্গে তিনি বলেন, ভারত সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে কয়েকটি দৃঢ় পদক্ষেপ নিয়েছে। আগামী দিনেও নেবে।

জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা লোপ করার পরেই ভারতের বিরুদ্ধে একের পর এক বিবৃতি দিয়ে চলেছে পাকিস্তান। শুধু বিবৃতি দেওয়া নয়, পাকিস্তানে ঘাঁটি বানিয়ে থাকা জঙ্গিরাও কাশ্মীরে ঢুকতে তৈরি হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। জম্মু-কাশ্মীরে হামলা চালানোর জন্য জৈশ ই মহম্মদের নেতা মৌলানা মাসুদ আজহারকেও জেল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। সেই প্রেক্ষিতে মোদী সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে দৃঢ় পদক্ষেপ নেওয়ার কথা বলে কার্যত পাকিস্তানকেই সতর্ক করে দিয়েছেন বলে পর্যবেক্ষকদের ধারণা।

বুধবার উত্তরপ্রদেশের মথুরায় ‘স্বচ্ছতা হি সেবা’ প্রকল্পের এক অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এখন জঙ্গিবাদ কোনও দেশের সীমানায় আটকে নেই। আমাদের প্রতিবেশী দেশে ওই মতাদর্শের শিকড় রয়েছে। এর পরেই মোদী বলেন, আমরা অতীতে সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে কয়েকটি কড়া পদক্ষেপ নিয়েছি। ভবিষ্যতেও নেব।

সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে প্রতিটি রাষ্ট্রেরই ঐক্যবদ্ধ হওয়া উচিত বলে মোদী মনে করেন। তাঁর কোথায়, সারা বিশ্বেরই উচিত সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে শপথ গ্রহণ করা। যারা সন্ত্রাসবাদীদের প্রশিক্ষণ দেয় ও আশ্রয় দেয়, তাদের বিরুদ্ধে সব দেশকেই ব্যবস্থা নিতে হবে। এরপরে মোদী জানিয়ে দেন, ভারত নিজে সন্ত্রাসবাদের বিপদের মোকাবিলা করতে পারে।

গত সপ্তাহে সংশোধিত ইউএপিএ অনুযায়ী মোদী সরকার জৈশ প্রধান মৌলানা মাসুদ আজহার, লস্কর ই তৈবার প্রধান হাফিজ মহম্মদ সৈয়দ, সংগঠনের ওপর সদস্য জাকিউর রহমান লাকভি ও মাফিয়া ডন দাউদ ইব্রাহিমকে সন্ত্রাসবাদী বলে ঘোষণা করে।

ভারতের গোয়েন্দারা খবর পেয়েছেন, সংবিধানের ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়ার প্রতিবাদে পাকিস্তান কাশ্মীরে ‘বিগ অ্যাকশন’ করার ছক কষেছে। শিয়ালকোট-জম্মু এবং রাজৌরি সেক্টরে তারা সম্ভবত হামলা চালানোর চেষ্টা করবে।

Comments are closed.