শনিবার, জানুয়ারি ২৫
TheWall
TheWall

স্কুলে ঢুকে গুলি চালিয়ে দিল দুই প্রাক্তন ছাত্র! নিহত এক কিশোর, আহত আট

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ফের গুলি চলল আমেরিকার স্কুলে! এবার ঘটনাস্থল ডেনভারের একটি স্কুল। তবে এই গুলি চালানোর ঘটনায় কোনও দুষ্কৃতী নয়, নাম উঠে এসেছে দু’জন প্রাক্তন ছাত্রের। গুলিবিদ্ধ হয়ে ইতিমধ্যে এক জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। আট জন ছাত্র আহত হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

ডগলাস কাউন্টি পুলিশ জানিয়েছে, কলোরাডো স্টেম স্কুলে এই ঘটনা ঘটেছে। অভিযুক্ত সন্দেহভাজন দুই প্রাক্তন ছাত্রকে গ্রেফতার করা হয়েছে। স্কুল চত্বরে তল্লাশিও চলছে। স্কুলের মোট ছাত্র সংখ্যা আঠারোশো। গোটা স্কুল চত্বর ঘটনার পরে ঘিরে ফেলা হয়েছে। অভিযুক্ত দুই ছাত্রের মধ্যে এক জনের নাম ডেভন এরিকসন বলে জানিয়েছে পুলিশ। সে সদ্য পাশ করেছে ওই স্কুল থেকেই। তার সঙ্গে ছিল আরও এক জন। ওই দু’জন ছাড়াও এই নৃশংস ঘটনায় আরও এক তৃতীয় ছাত্রের খোঁজ চলছে। সেই ছাত্র কে, তা খুঁজে বার করার চেষ্টা করছে পুলিশ।

আহত ছাত্র-ছাত্রীরা গুরুতর আহত অবস্থায় মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই করছে এখনও৷ ফলে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে৷ প্রশাসন বলছে, আজ অবধি আমেরিকায় যতগুলি বন্দুক হামলা হয়েছে, তার মধ্যে অন্যতম নৃশংস কলোরাডোর স্কুলের এই হামলার ঘটনা৷ বন্দুকবাজরা সোজা স্কুলের ভিতরে ঢুকে এসে গুলি চালিয়েছে। তবে কেন এমনটা ঘটাল তারা, সে বিষয়ে এখনও অন্ধকারে পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার দুপুর দু’টো নাগাদ দু’জন তরুণ মুখোশ পরে, বন্দুক হাতে নিয়ে সটান ঢুকে যায় কলোরাডোর ওই স্কুলে৷ তার পরেই এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে শুরু করে তারা৷ ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় ১৮ বছর বয়সি এক ছাত্রের৷ আরও আট ছাত্রের গুলি লেগেছে৷ তবে শিক্ষক ও কর্মীদের মধ্যে কারও হতাহতের খবর নেই৷ গুলিতে আহত সব চেয়ে ছোটো ছাত্রের বয়স ১৫৷

তবে বন্দুকবাজদের দেখেই তত্‍‌পর হয়ে যায় স্কুলের নিরাপত্তারক্ষীরা৷ তাই হতাহতের বিশাল সংখ্যা এড়ানো গিয়েছে বলে দাবি করেছেন স্কুল কর্তৃপক্ষ৷

Share.

Comments are closed.