মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৭

কানে ফোন, সাপের উপর বসে পড়লেন মহিলা, বিষধরের কামড়ে তখনই মৃত্যু

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ফোনে কথা বলতে বলতে, অন্যমনস্ক ভাবে খাটের উপরে বসে পড়েছিলেন এক মহিলা। দেখতে পাননি, ছাপা-ছাপা প্রিন্টেড চাদরে নিঃশব্দে মিশে আছে দু’দু’-টি সাপ! সেগুলির উপরেই বসেছিলেন তিনি। সাপের কামড়ে কয়েক মিনিটের মধ্যেই মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন তিনি।

বুধবার গোরক্ষপুরের রিয়ানভ গ্রামের এই ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে এলাকায়। গ্রামবাসীরা জানিয়েছেন, মৃত গীতার স্বামী জয়সিং যাদব থাইল্যান্ডে কাজ করেন। গ্রামের বাড়িতে একাই থাকতেন গীতা। বুধবার জয়সিঙের সঙ্গেই ফোনে কথা বলছিলেন তিনি। এই সময়েই বাইরে থেকে দু’টি সাপ ঘরে ঢুকে পড়ে। নিঃশব্দে খাটের চাদরে মিশে যায়।

কথা বলতে বলতে অন্যমনস্ত ভাবে ঘরে ঢুকে ওই খাটেই বসেন গীতা। আর তখনই সাপে ছোবল মারে তাঁকে। চিৎকার করতে থাকেন গীতা, কয়েক মিনিটের মধ্যেই জ্ঞান হারান তিনি। এর মধ্যে প্রতিবেশীরা ছুটে এসে গীতাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। কিন্তু চিকিৎসা শুরু হতে না হতেই মারা যান তিনি।

পরে প্রতিবেশী আত্মীয়রা বাড়ি ফিরে দেখেন, খাটের উপরে তখনও রয়েছে সাপ দু’টি। রাগে এবং ভয়ে সে দু’টিকে পিটিয়ে মেরে ফেলেন তাঁরা। সর্প বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, সম্ভবত মিলনরত ছিল সাপ দু’টি। মহিলা তাদের উপর বসতেই ভয় পেয়ে ছোবল মেরেছে তারা।

Comments are closed.