রবিবার, সেপ্টেম্বর ১৫

পুরোহিতের রহস্য-মৃত্যু বেহালায়! বান্ধবীর বাড়ি থেকে উদ্ধার দেহ, খুনের অভিযোগ দায়ের স্ত্রী-র

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মন্দিরের পুরোহিতের রহস্যজনক মৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্য বেহালা ট্রামডিপো এলাকায়। স্থানীয় সূত্রের খবর, রবীন্দ্রনগর সিদ্ধেশ্বরী কালীমন্দিরে নিয়মিত পুজো করতেন ৪৭ বছরের সিদ্ধার্থ ভট্টাচার্য। রবিবার রাত সাড়ে ১১টায় তাঁকে অচেতন অবস্থায় বিদ্যাসাগর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে, চিকিৎসকেরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। গলায় ফাঁস লেগে মৃত্যু হয়েছে তাঁর। খুন না আত্মহত্যা, সে বিষয়ে এখনও কিছু জানায়নি পুলিশ।

পুলিশ জানিয়েছে, ১৬২/১ ব্রাহ্মসমাজ রোডের বাড়িতে দুই ছেলে ও স্ত্রী-কে নিয়ে থাকতেন সিদ্ধার্থ। কিন্তু ঝুমা রায় নামে ওই এলাকারই বাসিন্দা আর এক মহিলার বাড়ি নিত্য যাওয়া-আসা ছিল তাঁর। সেখানে মাঝে মাঝেই রাতও কাটাতেন সিদ্ধার্থ।তাঁর স্ত্রী গৌতমীর অভিযোগ, রবিবার সন্ধ্যায় সিদ্ধার্থ ভট্টাচার্যকে ফোন করে বাড়িতে ডেকে পাঠিয়েছিলেন ঝুমা রায়। এর পরেই রাতের বেলা তিনি স্বামীর মৃত্যুসংবাদ পান।

স্থানীয় সূত্রের খবর, ঝুমা রায়-ও বিবাহিত, তাঁর দুই ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। স্বামী থাকেন না শহরে। ঝুমা পুলিশের কাছে দাবি করেছেন, তাঁর ছোটো ছেলের বাবা ছিলেন সিদ্ধার্থ। রবিবার রাতে সিদ্ধার্থ এলে, ছোটো ছেলেকে নিয়েই তাঁদের মধ্যে বচসা ও ঝামেলা হয় বলে পুলিশকে জানিয়েছেন ঝুমা। তাঁর দাবি, এর পরেই ঘরে ঢুকে গলায় দড়ির ফাঁস লাগিয়ে দেন সিদ্ধার্থ।

সিদ্ধার্থের স্ত্রী গৌতমীর অবশ্য দাবি, তাঁর স্বামীকে খুন করা হয়েছে। ঘটনার পূর্ণ তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Comments are closed.