শুক্রবার, নভেম্বর ২২
TheWall
TheWall

কাঁকড়া ধরতে গিয়ে সুন্দরবনে মৃত্যু দুই মৎস্যজীবীর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সুন্দরবনে কাঁকড়া ধরতে গিয়ে বাঘের আক্রমণে মৃত্যু হল দুই মৎস্যজীবীর।  তাঁদের নাম শম্ভু মণ্ডল (৫১) ও রাধা আউলিয়া (৪৫)।  বন দফতরের অনুমতি নিয়েই ছ’জন মৎস্যজীবী সুন্দরবনে গিয়েছিলেন। বাঘের আক্রমণে দু’জনের মৃত্যুর পরে বাকি চারজন ফিরে এসে বন দফতরে ঘটনার কথা জানান।  এখনও পর্যন্ত শুধু রাধার দেহ উদ্ধার করতে পেরেছে বন দফতর।

বন দফতর জানিয়েছে, অনুমতি নিয়েই দিন ছয়েক আগে।ওই দল সুন্দরবনে ঢুকেছিল।  দু’টি নৌকায় ছ’জন মৎস্যজীবী কাঁকড়া ধরছিলেন কালিরচক জঙ্গলে, এটি সজনেখালি রেঞ্জের অধীন।  এখানেই বিপদের মুখে পড়েন রাধা আউলিয়া।  তাঁকে বাঁচাতে যান শম্ভু।  তখন রাধাকে ছেড়ে বাঘটি ধরে শম্ভুকে।  চিৎকার শুনে চলে আসে আরেকটি নৌকাও।  তখন শম্ভুর নৌকায় থাকা তৃতীয় ব্যক্তি ভয়ে অজ্ঞান হয়ে যান।  শম্ভুকে মুখে করে বনের ভিতরে চেল যায় বাঘটি। বাঘের থাবার আঘাতে ততক্ষণে মৃত্যু হয়েছে রাধার।

বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে পাঁচটার ঘটনা। বন ফিরে আসা মৎস্যজীবীদের থেকে খবর পেয়ে বন দফতরের টহলদারি নৌকা গিয়ে রাধার রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার করে নিয়ে আসে।  রাধার দেহ ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে গোসাবা থানার পুলিশ।  শম্ভুর দেহ এখনও খুঁজে পায়নি বন দফতর।

সাত দিনে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার সজনেখালির জঙ্গলে বাঘের আক্রমণে মৎস্যজীবীর মৃত্যু হল।  আগের বার এক জনের মৃত্যু হয়েছিল। তাঁর দেহ উদ্ধার করে এনেছিল বন দফতর।

পুরস্কারের জন্য আমি সিনেমা বানাব না: প্রদীপ্ত ভট্টাচার্য

Comments are closed.