ভ্য়ালেন্টাইনস ডে তে অফিসেই বিয়ে, উলুবেড়িয়ার এসডিও ও পাটনার ডিএসপির

উলুবেড়িয়ায় মহকুমাশাসকের দফতরেই হল অনাড়ম্বর অনুষ্ঠান

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

    দ্য ওয়াল ব্যুরো, হাওড়া : কাজের জগতে ঢুকেই কাছের মানুষ খুঁজে পেয়েছিলেন দুজন। শুক্রবার ভালবাসার দিনে একে অপরকে ভবিষ্যতে একসঙ্গে থাকার প্রতিশ্রুতি দিলেন। একজন আইএএস, অন্যজন আইপিএস।

    পদমর্যাদার আইএএস অফিসার উলুবেড়িয়ার মহকুমাশাসক তুষার সিংলা। তাঁর স্ত্রী, আইপিএস অফিসার নভজ্যোৎ সামিয়ালের পোস্টিং বিহারে। খুব সম্প্রতি অ্যাডিশনাল এসপির দায়িত্বভার নিয়েছেন সেখানে। শুক্রবার উলুবেড়িয়ায় মহকুমাশাসকের বাংলোয় খাতায় কলমে বিয়ে সারলেন তাঁরা। অনুষ্ঠান হবে পরে। তাঁদের নিজের রাজ্য পাঞ্জাবে।

    হাতেগোনা কয়েকজন স্বজন-বন্ধুকে সাক্ষী রেখে সই করে বিয়েটা সারবেন ভেবেছিলেন দুজন। কিন্তু মহকুমাশাসকের বিয়ের খবর পেয়ে সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিরা সকাল সকালই ভিড় করেন। দোতলায় নিজের ছোট্ট কোয়ার্টার্সে সবার স্থান সঙ্কুলান না হওয়ায় তখন একতলায় নিজের দফতর খুলে বসতে দিতে হয় সবাইকে। সেখানেই ম্যারেজ রেজিস্ট্রারের উপস্থিতিতে বিয়ে সারলেন তুষার ও নভোজিৎ।

    উলুবেড়িয়ার মহকুমাশাসক তুষারের বাড়ি পঞ্জাবের বার্নালায়। নভোজিৎ পঞ্জাবেরই গুরুদাসপুরের বাসিন্দা। ২০১৫ ব্যাচের আইএএস তুষার। পশ্চিমবঙ্গ ক্যাডারের। নভোজিৎ ২০১৮ ব্যাচের আইপিএস। বিহার ক্যাডারের। আগে দন্তরোগ বিশেষজ্ঞ ছিলেন নভোজিৎ। পরে পেশা বদল। কাজের সূত্রেই কাছাকাছি আসা। উলুবেড়িয়ার মহকুমাশাসক বললেন, আমরা দুজনেই পঞ্জাবের বাসিন্দা। কাজের সূত্রে বছর খানেক আগে আমাদের পরিচয় হয়েছিল। সেই থেকে ঘনিষ্ঠতা। জীবনসঙ্গী হিসেবে বেছে নেওয়ার সিদ্ধান্তও তারপরে।

    পাশাপাশি রাজ্য হলেও পশ্চিমবঙ্গ ও বিহারের দূরত্ব অতিক্রম করে সংসার করা যাবে তো?

    লাজুক হেসে তুষার বললেন, চলতি বছরে বিহারের ভোট। ২০২১ সালে পশ্চিমবঙ্গের ভোট। এই সব ভোট মিটে গেলে ম্যাডামকে পশ্চিমবঙ্গ ক্যাডারের নিয়ে আসার চেষ্টা করব।

    ততদিন দুজনে থাকবেন দুজায়গায়।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More