Latest News

২০০৭-১১, চারবছরে দ্রাবিড়ের কোনও সেঞ্চুরি ছিল না! সঞ্চালনায় ভুল তথ্যে ফের বিতর্কে সৌরভ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: আবারও নয়া বিতর্ক সৃষ্টি করলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। বিরাট কোহলির ব্যাটিং ব্যর্থতা আড়াল করতে গিয়ে রাহুল দ্রাবিড়ের অফ ফর্মের দৃষ্টান্ত দিলেন। কিন্তু সেই দৃষ্টান্ত টানতে গিয়ে বড়সড় ভুল তথ্য পরিবেশন করেছেন বোর্ড প্রেসিডেন্ট, সেই নিয়ে অভিযোগ জানানো হয়েছে।

দাদাগিরির অনুষ্ঠানে সৌরভ সঞ্চালনা করতে গিয়ে ওই তথ্য দিয়েছেন। কোহলির ব্যাটে দু’বছর হতে চলল কোনও সেঞ্চুরি নেই, এক প্রতিযোগী এই নিয়ে জানতে চেয়েছিলেন মহারাজের কাছে। তারপরেই ভারতের অন্যতম সেরা প্রাক্তন দলনায়ক বলেন, ‘‘তোমরা বিরাট কোহলির কথা বলছ, বর্তমান কোচ রাহুল দ্রাবিড়ের সঙ্গে আমি খেলেছি বলে জানি, আমরা যেহেতু সমসাময়িক। রাহুলের ২০০৭ থেকে ২০১১ সাল পর্যন্ত আন্তর্জাতিক কোনও সেঞ্চুরি ছিল না, কিন্তু ২০১১-তেই রাহুল করেছিল চারটি সেঞ্চুরি। তাই কোনও কিছুই শেষ হয় না, যদি তুমি নিজে শেষ না করতে চাও!’’

সৌরভের ওই অনুষ্ঠানের ক্লিপিংসের ভিডিও দিয়ে সোশ্যাল সাইটে সেটি ভাইরাল করে দেওয়া হয়েছে। সেখানে তথ্য শুধরে জানানো হয়, রাহুল দ্রাবিড় ওই চারবছরে সেঞ্চুরি করেননি, এটি ভুল তথ্য। ওই সময়ের মধ্যে মোট ৮টি সেঞ্চুরি ছিল দ্রাবিড়ের। এমনকি ২০১১-তে চারটি নয়, পাঁচটি সেঞ্চুরি ছিল ভারতের বর্তমান কোচের।

সৌরভের সেই মন্তব্যের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে। অনেকেই বলেছেন,  সৌরভ সম্ভবত ২০০৭ সাল থেকে ২০১০ সালের কথা বলতে চেয়েছিলেন। সেটা ধরলেও ওই সময়ের মধ্যে টেস্টে মোট ৮টি সেঞ্চুরি করেছিলেন রাহুল।

২০০৭ সালে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ঢাকায় ১২৯ রান করেছিলেন। ২০০৮ সালে দুটি সেঞ্চুরি করেন, দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে চেন্নাইয়ে ১১১ রান এবং মোহালিতে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ১৩৬।

২০০৯ সালেও দ্রাবিড়ের ব্যাট থেকে এসেছিল দুটি সেঞ্চুরি। আমদাবাদে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ১৭৭ রান করেছিলেন। কানপুরে সেই শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধেই করেছিলেন ১৪৭ রান।

২০১০ সালে দ্রাবিড়ের শতরানের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় তিনে। বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ঢাকায় ১১১ রানে অপরাজিত ছিলেন। আমদাবাদে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ১০৪ রান করেন। সেই কিউয়িদের বিরুদ্ধে কানপুরে ১৯১ রানে ইনিংস খেলেছিলেন।

তারপর ২০১১ সালে লর্ডস-সহ মোট ৫টি সেঞ্চুরি করেছিলেন। এও জানানো হয়, দ্রাবিড়ের এতবছরের ক্রিকেটে কেরিয়ারে তিনি ১৯৯৬ সাল ও ২০১২ সালে কোনও সেঞ্চুরি করতে পারেননি। না হলে বাকি মরসুমে তাঁর ব্যাটে রানের বন্যা বয়েছে।

You might also like