Latest News

গুরুতর অপরাধ, কুস্তিগির দীপক পুনিয়ার বিদেশী কোচকে অলিম্পিক ভিলেজ থেকেই বহিষ্কার

দ্য ওয়াল ব্যুরো : টোকিও অলিম্পিকে ভারতের নামী কুস্তিগির দীপক পুনিয়ার সময়টা ভাল গেল না একেবারেই। আগেই তিনি পদক হারিয়েছেন নিজের কৌশলের ভুলে। তারপর শুক্রবার অলিম্পিক আয়োজক কমিটি বিদেশী কোচ মুরাদ গাইদরভকেও অলিম্পিক আঙিনা থেকে বহিঃষ্কার করে দিয়েছে। এমনকি তাঁর গেমস ভিলেজেও থাকার অনুমতি নেই। বাতিল করে দেওয়া হয়েছে তাঁর অলিম্পিকের অ্যাক্রিডিটেশন কার্ডও।

মুরাদের নামে অভিযোগ, তিনি খেলা শেষ হতেই রেফারির ওপর চড়াও হন এবং তাঁকে নিগ্রহ করেছেন। বেজিং অলিম্পিক্সে রুপোজয়ী বক্সার দীপক পুনিয়া ৮৬ কেজি ফ্রিস্টাইলে ব্রোঞ্জ পদক জয়ের ম্যাচেও হেরে যান। সান মারিনোর বক্সার নাজিম আমিনের কাছে ২-৪ হারেন দীপক। ২-১ এগিয়ে থাকার পরেও দীপককে হারতে হয়। এর পরেই তাঁর কোচ মুরাদ গাইদরভ ওই বাউটের যিনি রেফারি ছিলেন, তাঁর ঘরে গিয়ে তাঁকে মারধর করেছেন।

বিশ্ব কুস্তি সংস্থা সঙ্গে সঙ্গে বিষয়টি আইওসি-কে জানায়। ভারতের কুস্তি সংস্থার কাছে ওই বিদেশী কোচ ক্ষমা চাইলেও আইওসি জানিয়ে দিয়েছে, এরকম কাণ্ড করার পরে কাউকে রাখা যাবে না। তারা সেইসময় ভারতের সংস্থার কাছে জানতে চায়, কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হবে কিনা, সেইসময় ওই বিদেশী কোচকে বরখাস্ত করেছে।

বিশ্ব কুস্তি সংস্থা আইওসি-কে বলেছিল, গাইদরভের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া উচিত। কারণ তিনি এর আগেও এ ধরনের কাজ করেছে। তখন তাঁকে সতর্ক করেও ছেড়ে দেওয়া হয়েছিল। বেজিং অলিম্পিকে ৭৪ কেজি বিভাগে রুপো জিতেছিলেন গাইদরভ। তবে ২০০৪ এথেন্স অলিম্পিকেও তিনি বিপক্ষ খেলোয়াড়কে নিগ্রহ করেছিলেন, সেইসময়ও তিনি বাতিল ঘোষিত হন।

You might also like