Latest News

বেলজিয়ামের কাছে মাথানত মনপ্রীতদের, হকিতে ফাইনালের টিকিট হাতছাড়া ভারতের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রুদ্ধশ্বাস ম্যাচ। পেন্ডুলামের মতো দুলছিল ম্যাচটি, কী হয়, কী হয় এমন এক পরিস্থিতি। শেষমেশ ভারতীয় হকি দলের হার ২-৫ গোলে, যোগ্য দল হিসেবে অলিম্পিক হকিতে ফাইনালে চলে গেল বেলজিয়াম। ভারতীয় হকি দলের গড়া হল না ইতিহাস। তাদের সামনে ৪১ বছর পরে ফাইনালে ওঠার হাতছানি ছিল, কিন্তু শেষরক্ষা হল না তাদের।

ভারত সেমিফাইনালে হারলেও তাদের সামনে ব্রোঞ্জ জয়ের সুযোগ রয়েছে এখনও। অস্ট্রেলিয়া ও জার্মানির মধ্যে অপর সেমিফাইনাল ম্যাচে যে দল পরাজিত হবে, তাদের বিরুদ্ধে ব্রোঞ্জ পদকের ম্যাচে মাঠে নামবেন মনপ্রীতরা।

একটা ম্যাচে মোট ১৪টি পেনাল্টি কর্ণার আদায় করে নিয়েছে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন বেলজিয়াম। তার মধ্যে বেশিরভাগ গোল করেছে তারা। ওখানেই মনে হয় খেলা শেষ হয়ে গিয়েছে। একটা দল এতগুলি পেনাল্টি কর্নার আদায় করে নেওয়া মানে তারা চাপ রেখেছে ভারতীয় দলের ওপর। সেই চাপ নিতে পারলেন আমাদের ছেলেরা।

শেষ কোয়ার্টারে গিয়ে যত খুশি পেনাল্টি কর্নার পেয়েছে বেলজিয়াম। আর বারবার বাঁচিয়েছেন গোলকিপার শ্রীজেশ। কিন্তু শেষমেশ তিনি আর কত চাপ রাখবেন। তবুও এই হারও বীরের মতোই হয়েছে।

একটা খেলা শুরুর আগে এমন প্রেক্ষাপট শেষ কবে দেখা গিয়েছে, অনেকেই মনে করতে পারবেন না। ভারত ও বেলজিয়ামের মধ্যে হকি ম্যাচ দেখছেন সীমান্তের জওয়ানরা, দেশের প্রধানমন্ত্রী থেকে শুরু করে সাধারণ সব মানুষরা। সবাই দলের জয়গান গাইছেন। তার মধ্যে মাঠে উজার করে দিয়েছেন দেশের হকি বীররা। খেলা শেষে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী টুইট করেছেন, আমি হকি ম্যাচ পুরোটা দেখেছি। জয় ও হার জীবনের অঙ্গ, দলের ছেলেরা নিজেদের সেরাটা দিয়েছেন। ওঁরা আমাদের গর্বিত করেছেন।

এমনকি খেলা দেখতে আন্তর্জাতিক অলিম্পিক সংস্থার প্রেসিডেন্ট থমাস বাখ হকি স্টেডিয়ামে হাজির ছিলেন। কিন্তু তারপরেও শেষ রক্ষা হয়নি, হতাশ করে মাঠ ছেড়েছেন ভারতের ছেলেরা।

খেলায় অসাধারণ শুরু বেলজিয়ামের। ম্যাচের ২ মিনিটের মাথায় প্রথম পেনাল্টি কর্ণার পায় বেলজিয়াম। প্রথম সুযোগেই গোল করেন লুইপায়ের্ত। পেনাল্টি কর্ণার থেকে তাঁর করা গোলে ৭০ সেকেন্ডের মাথাতেই ১-০ গোলে এগিয়ে যায় বেলজিয়াম।

৭ মিনিটের মাথায় ম্যাচে ভারত প্রথম পেনাল্টি কর্ণার পায়। যদিও গোল করতে পারেনি। পরক্ষণেই তারা দ্বিতীয় পেনাল্টি কর্ণার আদায় করে নেয়। দ্বিতীয় সুযোগে পেনাল্টি কর্ণার থেকে গোল করতে ভুল করেননি হরমনপ্রীত সিং। তাঁর গোলেই ভারত ১-১ সমতায় ফেরে ম্যাচে।

প্রথম গোলের রেশ কাটতে না কাটতে ফের গোল করল ভারত। এবার মনদীপের স্টিক থেকে আসে সাফল্য। ৮ মিনিটের মাথায় মনদীপের ফিল্ড গোলে ম্যাচে ২-১ লিড নেয় ভারত।

টোকিওয় টানা চার ম্যাচে জিতে সেমিফাইনাল লড়াইয়ে নেমেছিলেন মনপ্রীতরা। গ্রেট ব্রিটেনকে ৩-১ গোলে হারিয়ে শেষ চারে জায়গা করে নিয়েছেন মনদীপরা। বেলজিয়াম কোয়ার্টার ফাইনালে ৩-১ গোলে পরাজিত করে স্পেনকে।

হাফ-টাইমে ফল ছিল ২-২। দ্বিতীয় কোয়ার্টারে পেনাল্টি কর্ণার একটি গোল করে বেলজিয়াম। উল্লেখ্য, প্রথম কোয়ার্টারের শেষে স্কোরলাইন ছিল ভারতের অনুকূলে ২-১। প্রথমার্ধে ভারত মোট ৪টি পেনাল্টি কর্ণার পায়, যার একটিকে কাজে লাগাতে পারে তারা। বেলজিয়াম সেখানে মোট ৭টি পেনাল্টি কর্ণার আদায় করে নেয়, যার ২টিকে গোলে পরিণত করে তারা।

২৭ মিনিটের মাথায় ফের পেনাল্টি কর্ণার পেয়ে যায় বেলজিয়াম। যদিও ভারত এযাত্রায় পতন রোধ করে। আলেকজান্ডারের শট প্রতিহত হয়। ভারত ফ্রি-হিট পেয়ে যায়।

দ্বিতীয় কোয়ার্টারে গোল করে ম্যাচে ২-২ সমতা ফেরাল বেলজিয়াম। ১৯ মিনিটের মাথায় টুর্নামেন্টের টপ স্কোরার আলেকজান্ডার রবি হেনড্রিক্স পেনাল্টি কর্ণার থেকে গোল করেন। টুর্নামেন্ট এটি তাঁর ১২ নম্বর গোল।

প্রথম কোয়ার্টারের শেষে ভারত ২-১ গোলে এগিয়ে ছিল। ম্যাচের ২ মিনিটের মাথায় গোল করে বেলজিয়াম। যদিও খুব বেশিক্ষণ লিড ধরে রাখতে পারেনি তারা। ৭ মিনিটের মাথায় পেনাল্টি কর্ণার থেকে গোল করে ভারত ম্যাচে সমতা ফেরায়। ৮ মিনিটের মাথায় ভারত দ্বিতীয়বার বেলজিয়ামের জালে বল জড়ায় এবং ২-১ গোলে এগিয়ে যায়। প্রথম কোয়ার্টারে ভারত ৩টি পেনাল্টি কর্ণার পায়।

শুরুটা যেমন করেছিল বেলজিয়াম, শেষটিও তারাই করল নিখুঁতভাবে। তারা দেখাল, অলিম্পিকে সোনা জিততে গেলে আরও ধারাবাহিক হতে হবে। ভারতীয় হকি দলের কাছে এটাও চরম শিক্ষার।

ভারতীয় দল:  মনপ্রীত সিং (ক্যাপ্টেন), শ্রীজেশ (গোলিকিপার), অমিত রোহিদাস, রুপিন্দর পাল সিং, হরমনপ্রীত সিং, সুরেন্দ্র কুমার, হার্দিক সিং, নীলকান্ত শর্মা, শামশের সিং, মনদীপ সিং, দিলপ্রীত সিং।

 

You might also like