Latest News

সানিকে ছুঁলেন শ্রেয়স, চাপের মুখে হাফসেঞ্চুরি ঋদ্ধির, জয়ের গন্ধ পাচ্ছে ভারত

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কানপুরে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টে জয়ের গন্ধ পেয়ে গিয়েছে ভারতীয় দল। ২৮০ রান করলে জিততে হবে, এই অবস্থায় ব্যাটিং করতে নেমে কিউইরা দ্বিতীয় ইনিংসে করেছে চার রান, এর মধ্যেই এক উইকেট পড়ে গিয়েছে।

কানপুরের এই পিচ স্পিনারদের কাছে স্বর্গ, তাই সোমবার ম্যাচের শেষদিন অশ্বিন, অক্ষরদের বোলিংয়ের সামনে বিপক্ষ ব্যাটসম্যানরা আত্মসমর্পন করবেন, বলাই যায়। যদিও খেলার নাম যেহেতু ক্রিকেট, তাই কেউ যদি পর্বত না হয়ে ওঠেন, তা হলে এই টেস্টে জিতবে রাহানের দল। ভারতের থেকে এখনও ২৮০ রানে পিছিয়ে কিউয়িরা।

কানপুর টেস্টের তৃতীয় দিনের শেষে দ্বিতীয় ইনিংসে ভারতের স্কোর ছিল ১ উইকেটের বিনিময়ে ১৪ রান। সেখান থেকে চতুর্থ দিনে খেলতে নেমে এদিন শুরুতে বেশ চাপেই পড়ে যায় ভারত। টিম ইন্ডিয়ার টপ অর্ডার এদিন ফের ব্যর্থ হয়। একটা সময় মাত্র ৫১ রানে পাঁচ উইকেট খুইয়ে বসে রাহানে বাহিনী।

পূজারা (২২), রাহানে (৪), জাদেজা (০) এদিন আরও একবার ব্যর্থ হন। একটা সময় মনে হচ্ছিল, দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিং ব্যর্থতার জেরে চাপে পড়ে যাবে ভারত। তখনই ইনিংসের হাল ধরেন আগের ইনিংসে সেঞ্চুরি করা শ্রেয়স আইয়ার। তাঁর সঙ্গে জুটি বাঁধেন অশ্বিন এবং উইকেটরক্ষক ঋদ্ধিমান সাহা। ওই দু’জনের জুটিতে ভর করেই ঘুরে দাঁড়ায় ভারত।

৬৫ রানের ঝকঝকে ইনিংস খেলে ভারতকে লড়াইয়ে ফেরান শ্রেয়স। প্রথম ভারতীয় ব্যাটার হিসাবে অভিষেক টেস্টের প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরি এবং দ্বিতীয় ইনিংসে অর্ধশতরান করে ইতিহাসের খাতায় নাম তুলে ফেলেছেন ২৬ বছর বয়সী শ্রেয়স। অশ্বিন করেন ৩২ রান।

ঋদ্ধিমান সাহা আবারও বোঝালেন টেস্ট দলে তাঁর গুরুত্ব রয়েছে। চোটের কারণে কিপিং করতে পারেননি, মনে করা হচ্ছিল, দেশের হয়ে শেষ টেস্ট খেলে ফেললেন। সেই পরিস্থিতিতে কঠিন সময়ে বাংলার নামী উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান খেলেছেন ১২৬ বলে ৬১ রানের অপরাজিত ইনিংস, যার মধ্যে রয়েছে চারটি বাউন্ডারি ও একটি ছক্কা।

ঋদ্ধির পাশে শ্রেয়সও উজ্জ্বল ছিলেন। কানপুরে অভিষেকের আগে শ্রেয়সের হাতে টেস্ট ক্যাপ তুলে দেন কিংবদন্তি সুনীল গাভাসকার। কাকতলীয়ভাবে গ্রিন পার্কে সেই গাভাসকরের ৫০ বছর আগের রেকর্ড ছুঁলেন শ্রেয়স। কানপুরে অভিষেক টেস্টের প্রথম ইনিংসেই শতরান করেন শ্রেয়স।

১৬ নম্বর ভারতীয় ক্রিকেটার হিসেবে টেস্ট অভিষেকেই শতরান করার কৃতিত্ব অর্জন করেন তিনি। এবার দ্বিতীয় ইনিংসে হাফসেঞ্চুরি করা মাত্রই গাভাসকরের নজির ছুঁয়ে ফেলেন শ্রেয়স।

১৯৭১ সালে পোর্ট অফ স্পেনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে নিজের অভিষেক টেস্টের প্রথম ইনিংসে সানি ৬৫ রান করেন। দ্বিতীয় ইনিংসে গাভাসকর সংগ্রহ করেন ৬৭ রান। শ্রেয়স এদিন ৬৫ করতেই নজির গড়লেন, সানিকে স্পর্শ করলেন।

 

 

You might also like