Latest News

তুলে নেওয়া হল সৌরভের সেই বিতর্কিত ভিডিও, জার্সিও পালটে ফেলছে মোহনবাগান

দ্য ওয়াল ব্যুরো : ধিকিধিকি করে আগুন জ্বলছিলই। প্রথম থেকেই মোহনবাগান সমর্থকদের অসন্তোষ ছিল ‘এটিকে-মোহনবাগান’ নামটি নিয়ে। তাঁদের বক্তব্য ছিল, মোহনবাগান শতাব্দিপ্রাচীন এক ক্লাব, তাদের আর্থিকভাবে সাহায্য করা মানে সবটা বিকিয়ে দেওয়া নয়। সেই কারণেই সমর্থকরা চাইছিলেন, এটিকে নামটি মোহনবাগানের পরে আসুক।

প্রথমে এই দুই দলের সংযুক্তিকরণ নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়। সেইসময় ক্লাব কর্তারা একযোগে জানিয়েছিলেন, আর্থিক বুনিয়াদ ও দলের ভবিষ্যতের কথা ভেবে এই চুক্তি আগামীদিনে একটা নতুন রূপরেখা দেখাবে। সমর্থকরা সেই কথা ভেবে আশ্বস্ত হয়েছিলেন। কিন্তু পরে দেখা যায়, এটিকে ক্লাবের বেশিরভাগ শেয়ার কিনে নিয়েছে অর্থের বিনিময়ে। সেই জন্যই তাঁদের আধিকারিকদের কথাই মানতে হয় সবুজ মেরুন কর্তাদের।

অসন্তোষের মধ্যেও তাও একটা সমঝোতা ছিল। কিন্তু আইএসএলের শুরুর প্রায় দুই সপ্তাহ আগে টুর্নামেন্টের আয়োজক এফএসডিএল (ফুটবল স্পোর্টস ডেভলপমেন্ট লিমিটেড) একটি প্রোমো বানিয়েছে, সেই ভিডিও দেখা গিয়েছে এটিকে-র সঙ্গে গৌরব ও গরিমায় মোহনবাগানকেও একই পঙতিতে রাখা হয়েছে।

এই নিয়েই ঝামেলার সূত্রপাত। সেই ভিডিওতে ভারতীয় দলের প্রাক্তন অধিনায়ক তথা আইএসএলের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় জড়িয়ে গিয়েছেন। কারণ তিনিই ওই ভিডিওতে কথা বলেছেন। যেহেতু সৌরভ একটা আবেগের নাম, সেই কারণেই তাঁর কথার রেশ আগুনের গতিতে সব জায়গায় ছড়িয়ে পড়েছে।

এমনকি এটিকে ও মোহনবাগানের দুটি জার্সি একটা ওয়াশিং মেশিনে চুবিয়ে নতুন একটা জার্সির আত্মপ্রকাশও ভিডিওতে দেখানো হয়েছে। এটাতেও আপত্তি রয়েছে। যে ক্লাবের জার্সি অর্জন করতে গিয়ে একটা সময় অনেক ত্যাগ, লড়াই করতে হয়েছে, সেই জার্সির সঙ্গে একটা নতুন জন্ম নেওয়া জার্সির মিল হয় কী করে, সেই প্রশ্নও সমানভাবে উঠেছে।

তারপরই সবুজ মেরুন সমর্থকদের একটা অংশ ‘প্রোটেস্ট সৌরভ, প্রোটেস্ট এটিকে’ – এই স্লোগান সামনে রেখে সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যারাকিং শুরু করে। ক্লাবের এক শীর্ষ কর্তা পালটা বিবৃতি দিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করেন। পরে এফএসডিএল-কে অনুরোধ করে ওই ভিডিও ডিলিট করে দেওয়ার কথা বলা হয়। যদিও টুইটার, ইউটিউবে না থাকলে ওই একই বিজ্ঞাপন কী করে টিভিতে চলছে, সেই নিয়েও আজ প্রশ্ন উঠছে।

তার মধ্যেই রবিবার এটিকে-মোহনবাগান ক্লাবের অন্যতম ডিরেক্টর তথা ক্লাবের অর্থসচিব দেবাশিস দত্ত সমর্থকদের একটা খোলা চিঠিতে লিখেছেন, আইএসএল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে তাঁরা কথা বলছেন যাতে শীঘ্রই জার্সিতে থাকা তিনটি স্টার নিয়ে তৈরি হওয়া সমস্যা মিটে যায়। আপাতত সোশ্যাল মিডিয়ায় দলের কোনও জার্সি দেখানো হবে না। শীঘ্রই নয়া সবুজ-মেরুন জার্সি দেখতে পাবেন সমর্থকরা।

এমনকি ওই কর্তা ফের আশ্বাস দিয়েছেন আইএসএল টুর্নামেন্টে সমর্থকদের ভাবাবেগকেই যে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হবে, সেটিও তাঁরা দেখবেন। কারণ সমর্থকরা এও চাইছিলেন যাতে জার্সি থেকে তিনটি তারাকেও সমানভাবে সরিয়ে দেওয়া হয়। নতুন জার্সিতে সেটি থাকবে না, তাও পরিষ্কার করে দেওয়া হল।

You might also like