Latest News

পাক নাগরিকত্ব পাবে না সানিয়া-শোয়েবের ছেলে, বিকল্প কি তৈরি!

দ্য ওয়াল ব্যুরো: তিন দিন আগে জন্মেছে সানিয়া মির্জা ও শোয়েব মালিকের পুত্র সন্তান ইজহান মির্জা মালিক। এর মধ্যেই বিতর্ক শুরু হয়ে গেল তার নাগরিকত্ব নিয়ে।

৩০ অক্টোবর হায়দ্রাবাদের রেনবো হাসপাতালে সানিয়া মির্জা পুত্র সন্তানের জন্ম দেন৷ বাবা শোয়েব মালিক সোশ্যাল মিডিয়ায় সানিয়ার মা হওয়ার খবর জানান অনুরাগীদের৷ পাক ক্রিকেটমহলে শোয়েবের বাবা হওয়া নিয়ে খুশির বাতাবরণ থাকলেও তাঁর সন্তানের নাগরিকত্ব নিয়ে প্রশ্ন তোলে পাক মিডিয়া৷ পাকিস্তানের এক নামকরা উর্দু সংবাদমাধ্যম দাবি করে, পাকিস্তানের নাগরিকত্ব কোনও মতেই পাবে না শোয়েব-সানিয়ার ছেলে।

আরও পড়ুন যুবি, দাদা’র রেকর্ড ছুঁলেন বিরাট, সামনে শুধু শচীন

কারণ হিসেবে পাকিস্তানের অভিবাসন নীতিকে তুলে ধরেছেন তাঁরা। অভিবাসন নীতি অনুযায়ী ১৯ টি দেশের সঙ্গে পাকিস্তানের দ্বৈত্ব নাগরিকত্ব চুক্তি থাকলেও ভারতের সঙ্গে কোনও চুক্তি নেই। শোয়েব মালিকের সঙ্গে বিয়ে করার পরেও ভারতের নাগরিকত্ব ছাড়েননি সানিয়া। এমনকী বিভিন্ন টুর্নামেন্টে ভারতের হয়েই প্রতিনিধিত্ব করতে দেখা গেছে তাঁকে। তাই কোনও ভাবেই পাকিস্তানের নাগরিকত্ব পাবে না ইজহান মির্জা মালিক।

অবশ্য এরকম পরিস্থিতি হতে পারে, তা আগে থেকেই আঁচ করেছিলেন শোয়েব সানিয়া। তাই সেপ্টেম্বর মাসে শোয়েব জানিয়েছিলেন, তাঁদের সন্তান ভারত-পাকিস্তান কোনও দেশেরই নাগরিক হবে না। শোয়েব বলেছিলেন, ” নাগরিকত্ব গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নয়৷ যাই হোক, আমাদের সন্তান ভারতীয়ও হবে না, পাকিস্তানিও নয়৷ ”

ছেলের নাম রাখার সময় সানিয়া-শোয়েব দু’জনেরই পদবি ব্যবহার করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাঁরা৷ তাই ইজহানের পদবিতে মির্জা-মালিক ব্যবহার করা হচ্ছে৷ ২০১০ সালে দুজনের বিয়ের পর থেকে শোয়েব সানিয়া দুবাইয়ে থাকা শুরু করেছেন। নাগরিকত্বের ক্ষেত্রে দুবাইয়ের নীতি খুব সহজ। তাই ছেলের ক্ষেত্রেও হয়তো একই পদক্ষেপ নেবেন তাঁরা।

You might also like