Latest News

শ্রীলঙ্কার ড্রেসিং রুমে এসেছিলেন দাদা, বলেছিলাম চিন্তা করবেন না, চ্যাপিয়ন্স ট্রফির স্মৃতি ফেরালেন সঙ্গকারা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের অধিনায়কত্বে ভারতের আইসিসি ট্রফি বলতে শুধুমাত্র ২০০২ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জয়। তাও বৃষ্টিবিঘ্নিত ফাইনালে শ্রীলঙ্কার সঙ্গে যৌথভাবে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন ভারত। আর সেই ফাইনালে এমন কিছু ঘটেছিল যাতে যথেষ্ট বিরক্ত হয়েছিলেন সৌরভ। সেই কথা তুলে আনলেন শ্রীলঙ্কার প্রাক্তন অধিনায়ক কুমার সঙ্গকারা।

সম্প্রতি স্টার স্পোর্টসের একটি অনুষ্ঠানে সেই সময়ের কথা তুলে আনেন সঙ্গকারা। তিনি জানান, বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হওয়ার আগে মাঠের ভেতরে ঘটা একটা ঘটনার জন্য রেগে গিয়েছিলেন সৌরভ। পরপর দু’দিন বৃষ্টি হওয়ায় শেষ পর্যন্ত ভারত ও শ্রীলঙ্কাকে যৌথ বিজেতা ঘোষণা করা হয়।

সঙ্গকারা বলেন, “আমি স্পষ্ট মনে করতে পারছি ফাইনালে সৌরভের সঙ্গে রাসেল আর্নল্ডের কথা কাটাকাটি হয়েছিল। আমার মনে হয় দাদাকে আম্পায়ার ফাইনাল ওয়ার্নিং দিয়েছিল।”

কী ঘটনা ঘটেছিল, সেটাও জানান কুমার। তিনি বলেন, “ব্যাট করার সময় বারবার পিচের মধ্যে দিয়ে দৌড়চ্ছিলেন আর্নল্ড। আর সৌরভ বারবার তাঁকে বারণ করছিলেন। এই নিয়েই কথা কাটাকাটি হয়। আম্পায়ারদের মধ্যস্থতা করতে হয়। তারপরেই অধিনায়ক হওয়ায় সৌরভকে ওয়ার্নিং দেন আম্পায়াররা।”

বৃষ্টির জন্য খেলা বন্ধ থাকার সময় সৌরভ সটান তাঁদের ড্রেসিং রুমে গিয়ে হাজির হন বলে জানিয়েছেন সঙ্গকারা। তিনি বলেন, “দাদা আমাদের ড্রেসিং রুমে আসেন। আমাদের সঙ্গে পুরো ঘটনা নিয়ে তিনি কথা বলেন। তারপর তিনি বলেন, আবার এই ধরনের ঘটনা ঘটলে তাঁকে সাসপেন্ড করে দেবেন আম্পায়াররা। সেটা শুনে আমরা বলেছিলাম, চিন্তা করবেন না। এটা এমন কিছু বড় ব্যাপার নয়। আমরাও কোনও অভিযোগ করব না। সব ঠিক হয়ে যাবে।”

এই অনুষ্ঠানে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রাক্তন অধিনায়ক গ্রেম স্মিথও ছিলেন। তিনিও সৌরভের প্রশংসা করেন। লর্ডসে ন্যাটওয়েস্ট ফাইনাল জিতে সৌরভের জার্সি খুলে ঘোরানোর প্রসঙ্গে তিনি বলেন, “এই কাজ শুধুমাত্র সৌরভই করতে পারতেন।” প্রশাসনিক সৌরভেরও প্রশংসা করেন স্মিথ। তিনি বলেন, “প্রশাসনে থাকার সুবাদে দাদার সঙ্গে ফোনে অনেকবার কথা হয়েছে। উনি সবসময় শান্ত থাকেন। ওনার সঙ্গে সবসময় যোগাযোগ করা যায়। আর সবরকম ভাবে সাহায্য করেন সৌরভ। দাদাকে আমি খুব শ্রদ্ধা করি।”

You might also like