Latest News

নিউজিল্যান্ডে দলের সঙ্গে যোগ দিচ্ছেন হার্দিক, ইন্ডিয়া-এ দলে রাহুল

দ্য ওয়াল ব্যুরো : ভাগ্য এখনও ঝুলে রয়েছে। ৫ ফেব্রুয়ারি কী হবে, কিছুই জানেন না দুই ক্রিকেটার। তার মধ্যেই সাময়িক স্বস্তি। ফের জাতীয় দলে যোগ দিতে চলেছেন হার্দিক পান্ড্য। ফিরছেন লোকেশ রাহুলও। ইন্ডিয়া এ দলে যোগ দিচ্ছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার বিকেলে নির্বাসিত টিম ইন্ডিয়ার দুই ক্রিকেটারের উপর থেকে সাময়িকভাবে নির্বাসন তুলে নেয় বোর্ড৷ সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত বোর্ডের সিওএ কমিটির এই সিদ্ধান্তের পরই ভারতীয় দলে ফেরার রাস্তা তৈরি হয়ে যায় বিতর্কিত এই দুই ক্রিকেটারের৷ নির্বাসন মুক্ত হওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই হার্দিককে ভারতীয় দলে ফেরালেন জাতীয় নির্বাচকরা৷

আরও পড়ুন রাখীর জরি থেকে সেলুলয়েডের গডফাদার, রূপকথার মতো উত্থান শ্রীকান্তর

২৬ তারিখ অর্থাৎ শনিবার নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ খেলবেন বিরাটরা৷ তৃতীয় ম্যাচ সোমবার৷ তার আগে সম্ভবত দলের সঙ্গে যোগ দেবেন হার্দিক৷ আর রাহুল খেলবে ভারত-এ দলের হয়ে৷ তিরুবনন্তপুরমে ইংল্যান্ড লায়ন্সের বিরুদ্ধে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে শেষ তিনটি ম্যাচ খেলবেন কর্নাটকের এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান৷

কয়েক দিন আগে জনপ্রিয় পরিচালক প্রযোজক করণ জোহরের চ্যাট শো ‘কফি উইথ করণ’-এ গিয়ে মহিলাদের নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্যের জন্য পান্ড্য ও রাহুলকে শো-কজ করেছিল বিসিসিআই৷ শো-কজের উত্তর দিলেও অস্ট্রেলিয়া সফররত ভারতীয় দলের সঙ্গে থাকা হয়নি হার্দিক ও রাহুলের৷ সিরিজের মাঝপথেই দুই ক্রিকেটারকে নির্বাসনে পাঠায় প্রশাসনিক কমিটি। দেশে ফেরত পাঠানো হয় দুই ক্রিকেটারকে।

বৃহস্পতিবার বোর্ডের আইন অনুযায়ী প্রশাসনিক কমিটির সামনে দুই ক্রিকেটারের ভাগ্য নির্ধারণ ছিল। সেখানেই প্রশাসনিক কমিটির তরফে নিযুক্ত সিনিয়র আইনজীবী গোপাল সুব্রমন্যম জানিয়ে দেন এ ভাবে দুই ক্রিকেটারের ভবিষ্যৎ নির্ধারণ করা যাবে না। সুপ্রিম কোর্টের কাছে আবেদন করা হয়, যাতে কোর্ট নিজের একজন অম্বুড্‌জম্যান নিয়োগ করেন। এই অম্বুড্‌জম্যানই করবেন দুই ক্রিকেটারের ভবিষ্যৎ নির্ধারণ।

বোর্ডের তরফে সুপ্রিম কোর্টের কাছে জানানো হয়েছে, ৫ ফেব্রুয়ারির মধ্যে এই অম্বুড্‌জম্যান নিয়োগ করুক সুপ্রিম কোর্ট। ততদিনে দুই ক্রিকেটার দলের সঙ্গে যোগ দিতে পারবেন। তবে যে দিন শুনানি হবে, সে দিন তাঁদের ফের উপস্থিত হতে হবে বিসিসিআই দফতরে।

বোর্ডের তরফে এও জানানো হয়, এই নির্বাসন সাময়িক ভাবে তুলে নেওয়ার পর দুই ক্রিকেটার দলের সঙ্গে যোগ দেবেন কিনা, তা নির্ভর করবে টিম ম্যানেজমেন্টের উপর। বোর্ডের সঙ্গে কথা বলে ম্যানেজমেন্ট সিদ্ধান্ত নেয়, হার্দিককে অন্তত শেষ দুই ম্যাচ যদি খেলানো যায়।

ক্রিকেট মহলের একাংশের ধারণা বোর্ড মনে করছে, ৫ ফেব্রুয়ারির শুনানিতে যদি হার্দিক-রাহুলের উপর থেকে পাকাপাকিভাবে নির্বাসন উঠে যায়, তাহলে বিশ্বকাপের জন্য অলরাউন্ডার হিসেবে সুযোগ পান্ড্যর। সেক্ষেত্রে তাঁকে খেলার মধ্যে না রাখতে পারলে তার প্রভাব পড়বে তাঁর ফর্মে। তাই তড়িঘড়ি তাঁদের দলে ফেরানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হলো।

The Wall-এর ফেসবুক পেজ লাইক করতে ক্লিক করুন 

You might also like