Latest News

বিশ্বকাপেই কোতলের হুমকি মেসি, নেইমারকে

দ্য ওয়াল ব্যুরো:  রাশিয়া বিশ্বকাপের সব থেকে বড় ম্যাচ, ‘রাশিয়া বনাম আইসিস’। জীবন-মরণের এই ম্যাচে জয়ী হবে আইসিস। শুধু তাই নয়, মেরে ফেলা হবে মেসি, নেইমারকে। বিশ্বকাপের আগে এমন বার্তাতেই সন্ত্রস্ত ফুটবল বিশ্ব।

সম্প্রতি আইসিস ওয়াফা মিডিয়া ফাউন্ডেশনের তরফে কয়েকটি পোস্টার প্রকাশ করা হয়েছে। কোনও পোস্টারে দেখা যাচ্ছে ভল্গোগ্রাদ স্টেডিয়ামের বাইরে একে ৪৭ হাতে দাঁড়িয়ে আইসিস জঙ্গি। নিচে লেখা ‘আমাদের জন্য অপেক্ষা করো।’ একটা পোস্টারে দেখা যাচ্ছে কারাগারের মধ্যে বন্দি মেসি। তাঁর চোখ দিয়ে গড়াচ্ছে রক্ত। নিচে লেখা ‘জাস্ট টেররিজম’। কিন্তু ফুটবল ভক্তদের আতঙ্কিত করে তুলেছে অন্য একটি ছবি।

ফুটবলের অন্যতম দুই সেরা খেলোয়াড়ের জীবন কেড়ে নেওয়ার বার্তা দেওয়া হয়েছে সেখানে। পোস্টারে দেখা যাচ্ছে ঘাড়ে একে ৪৭ নিয়ে কালো পোশাক, মুখোশ পরা এক আইসিস জঙ্গি। তাঁর পায়ের নিচে পড়ে নেইমার ও মেসি। নেইমার কাঁদছেন। মেসির গলা ধর থেকে আলাদা। নিচে লেখা ‘যতদিন না মুসলিম দেশগুলোতে আমরা নিরাপত্তা পাচ্ছি, ততদিন তোমরা কেউ নিজেদের সুরক্ষিত মনে করতে পারবে না।’

বিশ্বকাপের আগেই আইসিস জঙ্গি সংগঠনের প্রকাশ করা এই পোস্টার স্বাভাবিক ভাবেই শোরগোল ফেলেছে গোটা বিশ্বে। মেসি, নেইমাররা শুধুমাত্র খেলোয়াড় নন, তাঁরা একটা দেশের প্রতিনিধি। ফুটবলের অন্যতম সেরা দুই বিজ্ঞাপন। তাই তাঁদের নিরাপত্তা সংগঠকদের কাছে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হয়ে উঠেছে।

ভল্গোগ্রাদ স্টেডিয়ামের বাইরে আইসিস জঙ্গির বন্দুক হাতে পোস্টার প্রকাশ হওয়ার পর নিরাপত্তা দল পাঠিয়েছে ইংল্যান্ড। কারণ ওই মাঠে খেলা আছে তাদের। ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা ফুটবল ফেডারেশনের তরফেও নিরাপত্তা দল পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। খেলোয়াড়দের সুরক্ষা তাদের কাছে সবথেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ বলে জানানো হয়েছে।

শুধু মেসি, নেইমার নন আইসিসের তরফে বুলেটবিদ্ধ ডোনাল্ড ট্রাম্প ও পুতিনের ছবিও প্রকাশ করা হয়েছে। গত কয়েক বছরে রাশিয়া থেকে বহু তরুণ নাম লিখিয়েছে আইসিস জঙ্গি সংগঠনে। তাই তাদের সাহায্য নিয়ে বিশ্বকাপের সময় জঙ্গিহানা হতে পারে বলে আতঙ্কে রাশিয়া। আতঙ্কে ফুটবল বিশ্বও।

You might also like