Latest News

বিরাট জয়ে টিকে থাকলেন কোহলিরা, ম্যাচ শেষে অশ্বিনে আপ্লুত ক্যাপ্টেন

দ্য ওয়াল ব্যুরো: জিতে সেমিফাইনালে যাওয়ার আশা টিকিয়ে রাখল ভারত (India)।

২১০ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দেওয়ার পর ভারতের প্রয়োজন ছিল অন্তত ৬০ রানের ব্যবধানে জয়। তাহলে তাদের রানরেট মাইনাস থেকে প্লাসে চলে আসবে।

আপাতত প্রাথমিক লক্ষ্যে সফল বিরাট কোহলির দল। ২১১ রানের লক্ষ্য দিয়ে আফগানিস্তানকে ১৪৪ রানে থামিয়ে দিয়েছে ভারত। ম্যাচ জিতেছে ৬৬ রানে। যার ফলে ভারতের রানরেট দাঁড়িয়েছে ০.০৭৩ এ। এই জয়ের ফলে সেমিতে ওঠার স্বপ্ন ভালভাবেই টিকিয়ে রেখেছে ভারতীয় দল।

প্রথম দুই ম্যাচে পাকিস্তান এবং নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে খাদের কিনারায় চলে গিয়েছিল ভারত। শঙ্কা দেখা দিয়েছিল টুর্নামেন্ট থেকেই বিদায় নেওয়ার। এখনও সম্ভাবনা দুলছে পেন্ডুলামের মত। অনেক ‘যদি, ‘কিন্তু’র ওপর নির্ভর করছে কোহলিদের সেমিতে খেলা।

আরও পড়ুন: ইস্টবেঙ্গল হাবিবের পাশে দাঁড়াল আর্থিক অনুদান নিয়ে, ওয়াল-এর খবরের জের

তবে, তার আগে নিজেদের কাজটা করতে হবে! সে কাজটাই প্রাথমিকভাবে সেরে রাখল আফগানিস্তানকে বড় ব্যবধানে হারিয়ে। বাকি দুটি ম্যাচে ভারতকে জিততে হবে, পাশে আবার নিউজিল্যান্ডকে একটি ম্যাচ হারতে হবে। তা হলেই ভারতের স্বপ্নপূরণ হবে।

সবচেয়ে বড় কথা, এ টুর্নামেন্টের প্রথম তিন ম্যাচে আফগানদের যে লড়াকু মানসিকতার দেখা গিয়েছিল, ভারতের বিপক্ষে তার ছিটেফোঁটাও দেখা যায়নি। শুরু থেকেই কেমন যেন অসহায় আত্মসমর্পন।

ব্যাটিংয়ের সুযোগ পেয়ে নিজেদের মেলে ধরলেন ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা। আফগানদের বোলিংয়ে যে দুর্ধর্ষ দেখা যাচ্ছিল, এই ম্যাচে তার একটুও ছিল না। পুরোপুরি নখদন্তহীন বোলিং। ২১০ রান তুলে ভারতীয় দল রেকর্ড গড়ল, এত রান মেগা টুর্নামেন্টে কেউ তোলেনি এর আগে।

বুধবার মরুশহরে ব্যাট হাতে তাণ্ডবলীলা চালালেন রোহিত শর্মা ও লোকেশ রাহুল। ওপেনিং জুটিতে ১৪০ রান করেন তাঁরা। রোহিত এবং রাহুলই বড় রানের ভিত গড়ে দেন।

রোহিতকে ব্যাটিং অর্ডারে নামিয়ে আনার সিদ্ধান্তে প্রবল সমালোচনা হয়। এদিন আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে অবশ্য রোহিতকে পাঠানো হয় ওপেন করতে।

আফগানিস্তানের মূল শক্তি স্পিন বোলিং। দলে রয়েছেন রশিদ খানের মতো স্পিনার। রোহিতকে তাতেও রোধ করা যায়নি। ৩৭ বলে রোহিত হাফসেঞ্চুরি করেন, অন্যদিকে ৩৫ বলে অর্ধশতরান করেন লোকেশ রাহুল।

‘হিটম্যান’ (৪৭ বলে ৭৪) ধরা পড়লেন মহম্মদ নবির হাতে। ৮টি বাউন্ডারি ও ৩টি ছক্কায় সাজানো ছিল রোহিতের ইনিংস। লোকেশ রাহুল করেন ৪৮ বলে ৬৯ রান।

ওপেনিং জুটিতে নজির গড়লেন রাহুল ও রোহিত। ভেঙে দিলেন গৌতম গম্ভীর ও বীরেন্দ্র সেহওয়াগের ১৩৬ রানের রেকর্ড। দলের রান যখন ১৪৭, তখন আউট হন রাহুল। এর পরে হার্দিক পাণ্ডিয়া (১৩ বলে ৩৫) ও ঋষভ পন্থ (১৩ বলে ২৭) দ্রুত রান তোলেন।

আফগানদের পক্ষে এই রান টপকানো কঠিনই ছিল। তার মধ্যে মহম্মদ শামি নিলেন তিন উইকেট ও দলের সিনিয়র স্পিনার রবিচন্দ্রন অশ্বিন নিলেন ১৭ রানে দুই উইকেট। জয়ের পরে দলের অধিনায়ক কোহলি প্রশংসা করেছেন অশ্বিনের। তাঁকে গত দুটি ম্যাচে সুযোগ দিলে ভাল হতো, এমনটি না বললেও বুঝিয়ে দিয়েছেন, তিনি থাকলে দলের বোলিং বিভাগে অনেক ভারসাম্য আসে। চলতি আসরের জন্য অনেক খেটেছেন অশ্বিন, সেই কথাও শোনা গিয়েছে ক্যাপ্টেনের মুখে।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

 

You might also like