Latest News

মেসিদের দেশে লকডাউন ঘোষণা, কোপা আমেরিকা কাপ চলে যেতে পারে আমেরিকায়

দ্য ওয়াল ব্যুরো: লাতিন আমেরিকা হওয়া নিয়ে যেন জটিলতা কাটতে চাইছে না। গতবার করোনাভাইরাসের প্রথম ঢেউয়ে সারা বিশ্বই ছিল দিশেহারা। এবার প্রায় নিশ্চিত ছিল আর্জেন্টিনায় সামনের মাসের ১৩ তারিখ থেকে কোপা আমেরিকা কাপ শুরু হবে। তার আগেই সমস্যা।

মনে করা হচ্ছে, কোপা আমেরিকা কাপ চলে যেতে পারে আমেরিকায়। কারণ আমেরিকায় আর করোনা সমস্যা সেইভাবে নেই। তারা নিজেদের আয়ত্বের মধ্যে নিয়ে এসেছে। সেখানে টুর্নামেন্ট হলে সমস্যা হবে না।
আর্জেন্টিনা ও কলম্পিয়া যৌথভাবে কোপা আমেরিকার দায়িত্ব পেয়েছিল। কিন্তু করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের কারণে লিওনেল মেসিদের দেশে নতুন করে লকডাউন ঘোষিত হয়েছে। আর কলম্বিয়ায় চলছে রাজনৈতিক অস্থিরতা। তাই তারা দায়িত্ব হারিয়েছে।

গত কয়েকদিন ধরেই করোনাভাইরাসের প্রকোপ মাত্রা ছাড়িয়ে যাচ্ছে। যার ফলে কোপা আমেরিকা সময়মতো শুরুর নিশ্চয়তা দিতে পারছে না আর্জেন্টিনা সরকার। এমনটাই জানিয়েছে স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলো।
এ সমস্যা সমাধানে অর্থাৎ আয়োজক হওয়ার জন্য এগিয়ে আসতে চায় চিলি, ইকুয়েডর ও ভেনেজুয়েলা। কিন্তু বিশ্বস্ত সূত্রের খবর, আর্জেন্টিনার বদলে আমেরিকাই প্রথম পছন্দ কনমেবল সংস্থার।

এর আগে কোপা আমেরিকার ২০১৬ সালের আসরের আয়োজক ছিল আমেরিকা। সেবার ফাইনাল ম্যাচে চিলির কাছে টাইব্রেকারে হেরে গিয়েছিল আর্জেন্টিনা।

গত কয়েক সপ্তাহ ধরেই রাজনৈতিক অস্থিরতা চলছে কলম্বিয়ায়। পাশাপাশি করোনাভাইরাস পরিস্থিতিও খুব একটা নিয়ন্ত্রণে নেই তাদের। তাই সবধরনের নিরাপত্তার কথা ভেবে কলম্বিয়াকে এবারের আয়োজক দেশ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

বিশ্বের কাছে নিজেদের দেশকে নিরাপদ এবং করোনা ঢেউ ঠেকানোর জন্য প্রস্তুত হিসেবে দেখানোর অনেক চেষ্টাই করেছে কলম্বিয়া সরকার। কিন্তু রাজনৈতিক অস্থিরতা থামা কিংবা করোনা পরিস্থিতি উন্নতির কোনও ছাপ তারা দেখাতে পারেনি।

আগামী ১৪ জুন চিলি ও আর্জেন্টিনার ম্যাচের মধ্য দিয়ে শুরু হবে এবারের কোপা আমেরিকা। কিন্তু যেখানে এক মাসও সময় নেই, সেই পরিস্থিতিতে টুর্নামেন্টের দেশ নিয়েও চূড়ান্ত কোনও সিদ্ধান্ত হল না।
এদিন তার মধ্যেই লিওনেল মেসির নেতৃত্বাধীন দলের ফুটবলাররা সবাই আর্জেন্টিনা পৌঁছে গিয়েছেন কোপা আমেরিকা শিবিরে যোগ দিতে।

You might also like