Latest News

অপ্রতিরোধ্য টিম বেঙ্গল, মণীশ পান্ডের কর্ণাটককে হারিয়ে শেষ আটে সুদীপরা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মরসুমের শুরুটা দারুণ করেছে টিম বেঙ্গল (Bengal)। তারা একের পর এক দলকে হারিয়ে মুস্তাক আলির (Mushtaq Ali) কোয়ার্টার ফাইনালে চলে গেল। কর্ণাটকের (Karnataka) মতো শক্তিশালী দলকে সুদীপ চট্টোপাধ্যায়ের বাংলা হারাল সাত উইকেটে।

এবার দল নির্বাচন করতে গিয়ে গতবারের অধিনায়ক অনুষ্টুপ মজুমদারকে বাদ দেওয়ার পরে নানা সমালোচনা হয়। কিন্তু বাংলা দল যে সঠিক পথেই এগোচ্ছে, সেটি আরও একবার এদিন জানিয়েছেন কোচ অরুণ লাল।

চলতি মুস্তাক আলি টি ২০ ক্রিকেটে মুম্বইয়ের কাছে অল্পের জন্য হারের পরে বাংলা সব ম্যাচই জিতেছে। গুয়াহাটিতে টস জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নামে কর্ণাটক। নির্ধারিত ২০ ওভারে তারা ৮ উইকেটের বিনিময়ে ১৩৪ রান তোলে। ব্যর্থ হন দুই ওপেনার মায়াঙ্ক আগরওয়াল (৪) ও দেবদূত পাডিক্কাল (০)। দু’জনকেই সাজঘরে ফেরান মুকেশ কুমার।

আরও পড়ুন: ‘ছেলেদের দোষ দেবেন না, জৈব বলয়ে ব্র্যাডম্যানের গড়ও কমে যেত!’ সাফাই শাস্ত্রীর

করুণ নায়ারকে সঙ্গে নিয়ে মণীশ পান্ডে মোকাবিলা করেছেন। তবে দুই তারকা সাজঘরে ফিরতেই চাপে পড়ে যায় কর্নাটক। মণীশ ৩২ রান করে শাহবাজের বলে আউট হন। নায়ার ৪৪ রান করে প্রদীপ্ত প্রামানিকের বলে উইকেট দেন। বাকিরা তেমন সফল হতে পারেননি।

মুকেশ কুমার ৩৩ রানে ৩টি উইকেট দখল করেন। শাহবাজ আহমেদ ৪ ওভারে মাত্র ১৫ রানের বিনিময়ে ১টি উইকেট দখল করেন। প্রদীপ্ত প্রামানিক ৩৩ রানে ২টি উইকেট নিয়েছেন। ৪ ওভারে ১৯ রানের বিনিময়ে ১টি উইকেট নিয়েছেন আকাশ দীপ।

জবাবে ব্যাটিং করতে নেমে বাংলা ১৮ ওভারে ৩ উইকেটের বিনিময়ে ১৩৮ রান তুলে ম্যাচ জিতে যায়। অভিমন্যু ঈশ্বরন ৫১ রান করে অপরাজিত থাকেন। ৪৯ বলের ইনিংসে তিনি ৪টি চার ও ১টি ছক্কা মারেন। সুদীপ ৪ রান করে আউট হন। ঋত্ত্বিক চট্টোপাধ্যায় ১৮ ও ঋদ্ধিমান সাহা ২৭ রানের গুরুত্বপূর্ণ যোগদান রাখেন। ২৪ বলে ৩৪ রান করে অপরাজিত থাকেন কাইফ আহমেদ।

প্রসিধ কৃষ্ণ,  জগদীশ সূচিত ও কেসি কারিয়াপ্পা ১টি করে উইকেট নেন। এই জয়ের ফলে ৫ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে বাংলা গ্রুপের শীর্ষে উঠে আসে। কর্ণাটকও ৫ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে।

জয়ের পরে বাংলা কোচ অরুণ লাল বলেছেন, আমাদের যা দল তাতে চ্যাম্পিয়নও হতে পারি। দরকার নিজেদের প্রতি আত্মবিশ্বাস, তা হলেই সব স্বপ্ন পূরণ হবে। তবে ছেলেরা চাপ সামলে যে ভাল ফর্ম দেখাতে পারছে, এটাই আশার দিক।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like