Latest News

মাঠেই ফুটবলারের হীরের আংটি দিয়ে প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব, গ্যালারিতে হিল্লোল, হর্ষধ্বনিও

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ফুটবল সব পারে, দিনকে হয়তো রাত করতে পারে না, কিন্তু ভালবাসা বিলিয়ে দিতে পারে। প্রেমের পরশ সারা দিগন্তে ছেয়ে যায়, ফুটবলের মহামিলন মেলায় ধনী-গরীবের ভেদাভেদ থাকে না, সবাই এক ছাতার তলায় দাঁড়িয়ে পড়ে।

গ্যালারিতে ম্যাচ চলাকালীন সময়ে প্রেম নিবেদন হয়েছে, কিংবা প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছেন প্রেমিক। কিন্তু ম্যাচ চলাকালীন এরকম একটি ঘটনা ঘটেছে আমেরিকা মেজর সকার লিগে।

গত রাতে মিনেসোটা এফসি ও সান জোস আর্থকোয়েকের মধ্যে খেলা চলছিল। গ্যালারিতে তখন হাজির হাজার হাজার দর্শক। ম্যাচের শেষে বান্ধবী পেত্রা ভুকোভিচকে সাইডলাইনে ডেকে, হাঁটু গেড়ে বসে বিয়ের প্রস্তাব দিলেন মিনোসোটার মিডফিল্ডার হাসানি ডটসন স্টিফেনসন। গ্যালারি থেকে তখন দর্শকদের উল্লাস দেখার মতো।

বিয়ের প্রস্তাবে রাজি হয়ে যান পেত্রা। পুরো ঘটনার সাক্ষী রইল মিনোসোটা স্টেডিয়াম। তুমুল হর্ষধ্বনি চলছিল মাঠে, ফটোগ্রাফারদের মধ্যে হুড়োগুড়ি লেগে গিয়েছিল মুহূর্তটি ক্যামেরাবন্দী করার জন্য।

রোমান্টিক কোনও সিনেমায় এরকমটি হতে পারে। বাস্তবে যে হয়, সেটিই অবাক করে দিয়েছে বাকিদের। ম্যাচটি শেষমেশ ২-২ ড্র হলেও মাঠ থেকে ফেরা দর্শকদের হৃদয় জয় করে নিয়েছে এই ঘটনা।

প্রেমিকা পেত্রা ইন্সটাগ্রামে লিখেছেন, “এমন কোনও শব্দ নেই যা আমার হৃদয় যে খুশিকে অনুভব করছে তা প্রকাশ করতে পারবে। তোমার থেকে ভালবাসা পাওয়া আমার কাছে আশীর্বাদ। এই স্মৃতি আমার জীবনে তৈরি করার জন্য যে সকল ব্যক্তি জড়িত ছিল তাদের সকলকে অনেক অনেক ধন্যবাদ। আমাদের শুভেচ্ছা জানানোর জন্যও প্রত্যেককে ধন্যবাদ জানাই।”

ডটসনের বান্ধবী অপ্রত্যাশিত প্রস্তাব পেয়ে বেজায় খুশি হন। তাঁর আবেগ ধরে রাখা সম্ভব হয়নি। তিনি এই প্রস্তাবে কতটা খুশি হয়েছেন তা ফুটে উঠেছে তাঁর মুখে-চোখে। ডটসনও বান্ধবীর অনামিকায় হিরের আংটি পরিয়ে দেন। একে অপরকে জড়িয়ে ধরেন। আর গ্যালারি থেকে ভেসে আসছিল তুমুল উচ্ছ্বাস।

You might also like