আমেরিকার আলি খানকে দলে নিল কেকেআর

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

দ্য ওয়াল ব্যুরো : নিলামে এ মরসুমের জন্য ক্রিকেটার নেওয়া হয়ে গিয়েছিল, তারপরেও পেসার নিল কলকাতা নাইট রাইডার্স। ইংল্যান্ডের পেসার হ্যারি গার্নি চোটের কারণে ছিটকে গিয়েছেন। তাঁর অভাব একটা ছিলই, সেই কারণেই দ্রুততার সঙ্গে আলি খানকে দলে নিয়েছে কেকেআর। আইপিএলের ইতিহাসে প্রথম কোনও আমেরিকার ক্রিকেটার এবার খেলবেন।
২৯ বছরের আলি এবার ক্যারিবিয়ান ক্রিকেট লিগে দাপটের সঙ্গে বোলিং করে সফলও হয়েছেন। নাইটরা এই টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়নও হয়েছে। তাদের কর্তারা ওয়েস্ট ইন্ডিজে হাজির ছিলেন। সেইসময়ই এই প্রতিভাবান পেস বোলারের সঙ্গে চুক্তি সেরে নিয়েছেন। আলি আসলে আমেরিকা নিবাসী। তিনি এবার কেকেআরের হয়ে ক্যারিবিয়ান লিগে ভাল বোলিং করেছেন। সেইজন্যই আলিকে নিয়ে হ্যারির অভাব মেটাবে শাহরুখ খানের দল।

কেকেআর চেষ্টা করেছিল বাংলাদেশের নামী পেসার মুস্তাফিজুর রহমানকে দলে নিতে। কিন্তু বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড সম্মত হয়নি। তারা চায় তাদের সব ক্রিকেটার জাতীয় দলের হয়ে শ্রীলঙ্কা সফরে যান। মুস্তাফিজুরকে পাওয়া যাবে না ধরে নিয়েই আলি খানের সঙ্গে কথা বলে চুক্তি করে নেয়।

সদ্য সমাপ্তি সিপিএলে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন ত্রিনবাগো নাইট রাইডার্সের শিরোপা জয়ে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখেছেন আলি খান। শিরোপা জেতার পর তার ত্রিনবাগো সতীর্থ এবং আইপিএলের দল চেন্নাই সুপার কিংসের ডোয়েন ব্র্যাভোর সঙ্গে বিমানের ভেতরে বসা একটি ছবি আপলোড করেছেন আলি খান। যেখানে লিখেছেন, ‘পরবর্তী গন্তব্য দুবাই।’ তখনই বোঝা গিয়েছিল আইপিএল খেলার সুযোগ পেয়েছেন তিনি। প্রসঙ্গত, আলি খান ছাড়া কেকেআরের অন্যান্য বিদেশি খেলোয়াড়রা হলেন ইয়ন মরগ্যান, টম ব্যান্টন, আন্দ্রে রাসেল, সুনীল নারিন, ক্রিস গ্রিন, লকি ফার্গুসন, প্যাট কামিন্স।

বেশ কয়েকবছর ধরেই সিপিএলে (ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগ) নিয়মিত ভাল খেলেছেন আলি। এমনকি গত বছরেও কলকাতা নাইট রাইডার্সের রাডারে স্ট্যান্ডবাই খেলোয়াড় হিসেবে ছিলেন তিনি। প্রায় নিয়মিতই ঘণ্টায় ১৪০ কিমি গতিতে বোলিং করতে পারেন আলি। একইসঙ্গে স্লগ ওভারে ইয়র্কারের জন্য বিশেষ পরিচিতি রয়েছে তাঁর।

তাঁর উল্লেখযোগ্য পারফরম্যান্সগুলোর মধ্যে রয়েছে ২০১৯ সালে নামিবিয়ার বিপক্ষে একটি ম্যাচ। যেখানে ৪৯তম ওভারে প্রতিপক্ষের প্রয়োজন ছিল ১২ বলে ১৪ রান। তখন বোলিংয়ে এসে তিন উইকেট নিয়ে ম্যাচ জিতিয়ে দেন আলি। ২০১৮ সালে কানাডার গ্লোবাল টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের মাধ্যমে প্রথম বড় মঞ্চে সুযোগ পান তিনি। নিজের অভিষেক মরসুমে ১২ ম্যাচে ১৬টি উইকেট নিয়ে আলোড়ন তোলেন তিনি। সিপিএলের বাইরে বিপিএল এবং পিএসএল খেলারও অভিজ্ঞতা রয়েছে তাঁর।

Get real time updates directly on you device, subscribe now.

You might also like

Comments are closed, but trackbacks and pingbacks are open.

This website uses cookies to improve your experience. We'll assume you're ok with this, but you can opt-out if you wish. Accept Read More