সোমবার, সেপ্টেম্বর ১৬

ছোট এলাচ কেন এবং কখন কাছে রাখবেন, কখনই বা এড়িয়ে চলবেন জেনে নিন

দ্য ওয়াল ব্যুরো : রান্নাঘরে মশলার তাকে ছোট এলাচ রাখেন না এমন খুব কম মানুষই আছেন।  এই ছোট এলাচই রান্নার কাজে যেমন লাগে, তেমনই আমাদের বেশ কিছু শারীরিক সমস্যা মেটাতেও কাজে আসে দারুণভাবে।  আপনি হয় তো জানতেনও না যে এই ছোট মশলাটি আপনার এতগুলো মুশকিল আসান করে দিতে পারে।  কী সেই সমস্যাগুলো, যা ছোট এলাচ সারিয়ে দিতে পারে…..জেনে নিন

১.অনেক সময়ে আমাদের পেটের গণ্ডগোল থেকে মুখে বাজে গন্ধ হয়, কিন্তু ছোট এলাচ যখনই খাবেন, এতে থাকা সুন্দর গন্ধ আপনার সেই সমস্যা অনেকটাই কমিয়ে দেবে।
২.বাসে অনেকটা রাস্তা যেতে গিয়ে বা পাহাড়ি পথে অনেক সময়ে বমি বমি পায়, সে সময়েও দেখবেন ব্যাগে ছোট এলাচ থাকলে আপনার আর শরীর খারাপ করছে না।  কারণ ছোট এলাচের গুণ।
৩.যদি গ্যাসের সমস্যায় ভোগেন, তাহলে দুটো ছোট এলাচ দুধের সাথে মুখে দিন আর দেখুন সেই সমস্যা কত তাড়াতাড়ি কেটে যায়।
৪.বন্ধুদের সাথে পার্টি করতে গেছেন, অথচ বাড়ি ফিরে মা বাবার কাছে বকুনি খাওয়ার ভয়? চিন্তা করবেন না, আফটার পার্টি নেশার যে ঘোর থাকবে, এই এলাচই আপনাকে বাঁচিয়ে দেবে।
৫. জীবনে কোনও উষ্ণতা পাচ্ছেন না, স্ট্রেসের জন্য চরম মুহূর্তে সব আনন্দ নষ্ট হয়ে যাচ্ছে? এই ছোট এলাচই আপনাকে বড় আনন্দ দিতে পারে।  রোজ রাতে দুধে এই এলাচ ফুটিয়ে খেয়ে নিন।  দেখবেন সমস্যা মিটে গেছে।  সঙ্গীও খুশি, আপনিও খুশি।
৬.মুখের ভিতরে যদি আলসার হয়, তাহলে এই এলাচই আপনাকে অনেকটা সাহায্য করবে।  ছোট এলাচ মুখের আলসার সারিয়ে তুলতে সাহায্য করে।
৭.আপনার যদি বেশ কিছু দিন ধরে টাকা কড়ি নিয়ে সমস্যা চলতে থাকে, তাহলে শাস্ত্রে আছে টাকার ব্যাগে ৫ টি ছোট এলাচ রাখলে অর্থনৈতিক দুর্দশা কেটে যায়।

তবে গর্ভবতী মহিলারা ছোট এলাচ খাবেন না, মিসক্যারেজের সম্ভাবনা থাকে।  তাই আপনারা এড়িয়ে চলুন ছোট এলাচ।

Comments are closed.