রবিবার, সেপ্টেম্বর ২২

মনের সব ইচ্ছা পূরণের মাস শ্রাবণ, জেনে নিন এই মাসের মাহাত্ম্য

অনির্বাণ

শ্রাবণ মানেই বৃষ্টির কথা মনে পড়ে। কিন্তু সত্যিই শ্রাবণ মানেই অঝোর ধারা? পুরাণ থেকে বয়ে আসা সনাতন ঐতিহ্যের এক বিপুল ধারা রয়েছে শ্রাবণ মাসের সঙ্গে। হিন্দু পরম্পরায় শ্রাবণ এক পবিত্র মাস, এই মাসে কিছু আচার পালন করলে নাকি যাবতীয় মনস্কামনা পূর্ণ হয়—

জেনে নেওয়া যাক শ্রাবণের মহিমা।

• শ্রাবণ শিবের মাস হিসেবে খ্যাত। এই মাসের প্রতিটি সোমবার শিবের ব্রত ধারণ করেন লক্ষ লক্ষ হিন্দু ধর্মাবলম্বী। ব্রতের উদ্দেশ্য একটাই, মনস্কামনা পূরণ। শিবমূর্তি বা লিঙ্গের প্রতি দুধ নিবেদন শ্রাবণ-শিবব্রতের অন্যতম প্রাধান আচার।

• পুরাণ অনুসারে শ্রাবণ মাসেই ঘটেছিল সমুদ্র মন্থন। মন্থনের ফলে ইঠে আসা হলাহল বিষকে নিজ কণ্ঠে ধারণ করে মহাদেব সৃষ্টিকে রক্ষা করেন। এই কারণেই এই মাস শিবের প্রতি উৎসর্গীকৃত।

• ‘শ্রাবণ’ শব্দের উৎসে রয়েছে ‘শ্রবণ’। এই মাস যাবতীয় শুভ কথা শ্রবণের মাস।

• শ্রাবণ মাস উদযাপনের বিষয়ে কিছু কর্তব্য-অকর্তব্যকে পালন করে আসা হয় পরম্পরাগতভাবে।

• এই মাসের প্রতিদিন স্নানের পরে শিবস্তোত্র পাঠকে আবশ্যক মনে করেন শিবভক্তরা।

• বলা হয়, শ্রাবণ রুদ্রাক্ষ ধারণের জন্য প্রশস্ত সময়।

• শ্রাবণে শিবলিঙ্গে বিল্বপত্র প্রদানের একটি নিয়ম রয়েছে। এই মাসের অষ্টমী, চতুর্থী, নবমী, অমাবস্যা, সংক্রান্তি ও সোমবারগুলিতে বিল্বপত্র শিবের মাথা থেকে নামাতে নেই বলে জানানো হয়।

• শ্রাবণে স্ফটিক শিবলিঙ্গ স্থাপন শুভফলদায়ী।

• শ্রাবণসন্ধ্যায় হরপার্বতীর আরতি অবশ্যকর্তব্য।

• উত্তরভারতের বিস্তীর্ণ অঞ্চলে শ্রাবন মাসে মঙ্গলগৌরী পূজা অনুষ্ঠিত হয়।

Comments are closed.