বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৪

নতুন রেকর্ড ছুঁল সেনসেক্স

দ্য ওয়াল ব্যুরো : চলতি বছরে নতুন রেকর্ড ছুঁল সেনসেক্স। গত ৪ জুন সেনসেক্স উঠেছিল ৪০,৩১২ পর্যন্ত। বৃহস্পতিবার সেনসেক্স বাড়ল ২৮৬ পয়েন্ট। ফলে তা ছুঁয়েছে ৪০,৩৩৭-র ঘর।, আমেরিকার ফেডারেল রিজার্ভ সুদের হার কমেছে বুধবার। ভারতেও কয়েকটি ক্ষেত্রে করছাড় আসন্ন। সেই সঙ্গে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলির শেয়ারের দাম বেড়েছে। এইসব কারণে উঠেছে সেনসেক্স। নিফটিও এদিন ছাড়িয়ে গিয়েছে ১১,৯০০-র ঘর। গত জুন মাসে ১২,১০৩ ঘরে পৌঁছে রেকর্ড করেছিল নিফটি। এদিন ওই সূচক সেই রেকর্ড থেকে মাত্র ২০০ পয়েন্ট দূরে আছে।

নিফটির অন্তর্গত রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলির মধ্যে সেন্ট্রাল ব্যাঙ্কের শেয়ার ১৩ শতাংশ বেড়েছে। এলাহাবাদ ব্যাঙ্কের শেয়ার নয় শতাংশ, সিন্ডিকেট ব্যাঙ্কের শেয়ার আট শতাংশ, পিএনবি-র শেয়ার চার শতাংশ এবং ওবিসি-র শেয়ার ৩.৫ শতাংশ বেড়েছে।

সেনসেক্সের অন্তর্গত রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলির মধ্যে এসবিআইয়ের শেয়ারের দাম চার শতাংশ বেড়েছে। এর পাশাপাশি ইনফোসিসের শেয়ারের দাম বেড়েছে চার শতাংশ। টাটা মোটর্সের শেয়ারের দাম ৩.৫ শতাংশ এবং ইয়েস ব্যাঙ্কের শেয়ারের দাম দুই শতাংশ বেড়েছে। ওপর যে কোম্পানিগুলির শেয়ারের দাম উল্লেখযোগ্য হারে বেড়েছে, তার মধ্যে আছে টিসিএস, বাজাজ ফিনান্স, বাজাজ অটো এবং কোটাক মাহিন্দ্রা ব্যাঙ্ক।

আইআইএফএল সিকিউরিটিজের ডিরেক্টর সঞ্জীব ভাসিন বলেন, “কয়েকটি বড় সংস্থা প্রত্যাশার চেয়ে বেশি লাভ করেছে। কর্পোরেট সংস্থাগুলির কর কমানো হয়েছে। শোনা যাচ্ছে কয়েকটি রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার বিলগ্নিকরণ করা হবে। তার ফলেই শেয়ার সূচকের উর্ধ্বগতি লক্ষ করা গিয়েছে।”

জিওজিৎ ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেসের গবেষণা শাখার প্রধান বিনোদ নায়ার বলেন, “চলতি আর্থিক বছরের দ্বিতীয় ত্রৈমাসিকে অপ্রত্যাশিত লাভ হয়েছে। আশা করা হচ্ছে, অক্টোবর থেকে মার্চের মধ্যেও বিভিন্ন সংস্থার আয় বাড়বে। সরকারও সংস্কার প্রক্রিয়া চালু রাখবে। মূলধনী আয়ের ওপরে দীর্ঘমেয়াদি করও কমতে পারে। এই কারণগুলির ওপরে ভিত্তি করে বেড়েছে শেয়ার সূচক।”

Comments are closed.