বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২৫

৪৩ টা আসন পাবে? খোয়াব দেখছে বিজেপি, কটাক্ষ শিবসেনার

দ্য ওয়াল ব্যুরো : এখনও পর্যন্ত মহারাষ্ট্রে বিজেপির সঙ্গে জোট বেঁধে সরকারে আছে শিবসেনা। কিন্তু সোমবার তারাই সম্পূর্ণ বিরোধী দলের সুরে মন্তব্য করল, রাজ্যের অবস্থা শোচনীয় হয়ে পড়েছে। এই অবস্থায় কীভাবে বিজেপি আগামী লোকসভা নির্বাচনে ভালো ফলের আশা করছে, বোঝা মুশকিল।

গত শনিবার মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশ এবং রাজ্যের বিজেপি সভাপতি রাওসাহেব দানভে বলেন, রাজ্যে ৪৮ টি লোকসভা আসনের মধ্যে আমরা পাব ৪৩ টি। ২০১৪ সালের চেয়ে অন্তত একটি বেশি আসন এবার তো পাবই। এই দাবিকে এদিন বিদ্রুপ করেছে শিবসেনা। তাদের বক্তব্য, রাজ্যে অনেক সমস্যা আছে। তাছাড়া আমাদের সঙ্গে বিজেপির ঐক্য হবে কিনা তাও এখনও স্পষ্ট নয়। এই অবস্থায় বিজেপি কীভাবে এত আশাবাদী হতে পারে?

শিবসেনার মুখপত্র ‘সামনা’-য় লেখা হয়েছে, কৃষকদের মেয়েরা যখন আহমেদনগরে আন্দোলনে নেমেছিল, বিজেপি তাদের ওপরে দমনপীড়ন চালায়। গত কয়েক বছরে পিঁয়াজ উৎপাদক ও দুধ উৎপাদকরা ভালো ব্যবসা করতে পারেননি। সরকার পরিচালিত স্কুলগুলিতে ২৪ হাজার শূন্যপদ পূরণের দাবিতে শিক্ষকরা আন্দোলন করছেন। গত চার বছরে সরকার পরিচালিত শেলটার হোমগুলিতে মারা গিয়েছে এক হাজার শিশু। সরকার এই সব সমস্যার সমাধান করতে পারছে না। কিন্তু বিজেপি নিশ্চিত হয়ে বলছে যে, তারা এই রাজ্য থেকে ৪৩ টি লোকসভা আসন পাবে।

সরাসরি বিজেপির সমালোচনা করে সামনা-য় বলা হয়েছে, জনস্বার্থের নানা ইস্যুর চেয়ে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে রাজনীতিকে। অনেক সময় শিশির জমে বরফে পরিণত হয়। আমাদের শাসকদের হৃদয়ও একইভাবে জমে গিয়েছে।

শিবসেনা এদিন ফের রামমন্দিরের প্রসঙ্গ তোলে। বিজেপিকে কড়া সমালোচনা করে তারা বলে, আগামী দিনে লন্ডনে কিংবা আমেরিকাতেও পদ্ম ফুটতে পারে। কিন্তু তার আগে বিজেপিকে স্পষ্ট করে বলতে হবে, তারা এখনও রামমন্দির বানাতে পারেনি কেন?

শিবসেনা আগেই জানিয়ে দিয়েছে, আগামী ভোটে বিজেপির সঙ্গে তারা জোট বাঁধছে না। যদিও বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ একাধিকবার চেষ্টা করেছেন যাতে উদ্ধব ঠাকরের দলের সঙ্গে বিরোধ মিটিয়ে নেওয়া যায়। পর্যবেক্ষকদের ধারণা, সেই প্রচেষ্টায় কতদূর ফল হবে তাতে তিনি নিজেও নিশ্চিত নন। তাই কিছুদিন আগে মহারাষ্ট্রের বিজেপি কর্মীদের তিনি বলেছেন, আগামী দিনে এককভাবে ভোটে লড়ার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে। ২০১৯-এর লোকসভা ভোটে ত্রিমুখী এমনকী চতুর্মুখী প্রতিদ্বন্দ্বিতা হলেও আশ্চর্যের কিছু নেই।

Shares

Comments are closed.