বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২১
TheWall
TheWall

বিজেপি জোটধর্ম মানছে না, আরএসএস প্রধানের কাছে নালিশ শিবসেনার

  • 17
  •  
  •  
    17
    Shares

দ্য ওয়াল ব্যুরো : কিছুদিন আগে শিবসেনা ইঙ্গিত দিয়েছিল, প্রয়োজনে বিজেপির সঙ্গে জোট ভেঙে তারা কংগ্রেস ও এনসিপির সমর্থনে সরকার গড়তে পারে। কিন্তু সোমবার কংগ্রেসের সভানেত্রী সনিয়া গান্ধী পরিষ্কার জানিয়েছেন, শিবসেনাকে সমর্থন করবেন না। এনসিপি প্রধান শরদ পওয়ারও জানিয়েছেন, তিনি বিরোধী আসনে বসতেই পছন্দ করবেন। এরপর মঙ্গলবার জানা গেল, আরএসএস প্রধান মোহন ভাগবতকে চিঠি লিখেছে শিবসেনা। বিজেপির মতাদর্শগত গুরু রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘের শীর্ষ নেতার কাছে শিবসেনা নেতারা আর্জি জানিয়েছেন, মহারাষ্ট্রে সরকার গড়া নিয়ে যে অচলাবস্থা সৃষ্টি হয়েছে, তা সমাধানের জন্য হস্তক্ষেপ করুন।

বিজেপির কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতিন গড়করির ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত শিবসেনা নেতা কিশোর তেওয়ারির নামে চিঠিটি লেখা হয়েছে। তাতে অভিযোগ করা হয়েছে, বিজেপি কোয়ালিশন ধর্ম মানছে না। চিঠিতে লেখা হয়েছে, বিধানসভার নির্বাচনে মহারাষ্ট্রের মানুষ শিবসেনা-বিজেপি জোটের পক্ষে রায় দিয়েছেন। কিন্তু বিজেপি জোটধর্ম মানছে না বলেই সরকার গড়তে দেরি হচ্ছে। আরএসএস এই অচলাবস্থা কাটাতে সাহায্য করুক। আরএসএস এখনও চিঠির জবাবে কিছু জানায়নি।

মহারাষ্ট্রে বিধানসভা ভোটের ফল প্রকাশিত হয় ২৪ অক্টোবর। শিবসেনা দাবি করে, ৫০-৫০ ফরমুলায় সরকার গঠন করতে হবে। মুখ্যমন্ত্রীর পদটি তাদের ছেড়ে দিতে হবে আড়াই বছরের জন্য। দলের শীর্ষ নেতা উদ্ধব ঠাকরে বলেন, বিজেপির সভাপতি অমিত শাহ তাঁকে এমনই কথা দিয়েছেন। যদিও বিজেপি সেকথা স্বীকার করেনি।

সোমবার মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশ দিল্লিতে গিয়ে বিজেপির সভাপতি অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। পরে তিনি শুধু বলেছেন, মহারাষ্ট্রে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব সরকার গঠন করতে হবে। যদিও সরকার গঠনের জন্য তাঁরা কী পদক্ষেপ নিচ্ছেন, কীভাবে শিবসেনার সঙ্গে সমঝোতা করবেন, তা জানাননি।

মহারাষ্ট্র বিধানসভার মেয়াদ শেষ হচ্ছে ৯ নভেম্বর। তার মধ্যে সরকার গড়তে না পারলে রাষ্ট্রপতির শাসন জারি হবে।

Comments are closed.