শনিবার, সেপ্টেম্বর ২১

ভোট দিয়ে ছবি পোস্ট করতে গিয়ে জুড়লেন প্যারাগুয়ের পতাকা! বিতর্ক রবার্ট বঢরার পোস্ট ঘিরে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: তাঁকে নিয়ে প্রায়ই আক্রমণ শানায় গেরুয়া শিবির। বিতর্কের একটা সুযোগও ছাড়েন না তিনিও। প্রায়ই নানা বিধ বিষয়ে নানা রকম অস্বস্তিকর পরিস্থিতি তৈরি করেন, অস্বস্তিকর বিতর্কেরও সৃষ্টি করেন। তাঁকে নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে বারবার। এবার গোল বাঁধালেন একেবারে দেশের পতাকা নিয়ে। সংবেদনশীল এই বিষয়টি নিয়ে বড়সড় ভুল করে ফেলে, এখন গেরুয়া শিবিরের এবং নেটিজেনদের সমালোচনার মুখে প্রিয়ঙ্কা গান্ধীর স্বামী রবার্ট বঢরা।

রবিবার ষষ্ঠ দফার নির্বাচনে দিল্লিতে ভোট দিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা ও রবার্ট। তাঁদের ছেলে বিদেশে থাকায় ভোট দিতে পারেননি এই বছর। নিজে ভোট দেওয়ার পরেই সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি পোস্ট করেন রবার্ট বঢরা। সকলকে ভোট দেওয়ার বার্তাও দেন তিনি। এই পর্যন্ত সবই ঠিক ছিল। কিন্তু তিনি গন্ডগোল বাঁধালেন, সেই পোস্টের শেষে দেশের পতাকার একটি আইকন দিতে গিয়েই। কারণ তিনি ভুল করে ভারতের বদলে প্যারাগুয়ের পতাকার আইকন দিয়ে দেন সেই পোস্টে।

দেখুন সেই পোস্টের ছবি।

ব্যস, সঙ্গে সঙ্গে শুরু সমালোচনা! ভোট দিয়েছেন ভারতে, অথচ পোস্ট করলেন প্যারাগুয়ের পতাকার ছবি!– এমনটাই মন্তব্য করেন অনেকে। প্যারাগুয়ের পতাকার উপরের অংশ লাল ও নীচের অংশ নীল। মাঝখানে সাদা। ভারতের জাতীয় পতাকার সঙ্গে সামান্য মিল থাকলেও, পতাকার রঙগুলি একেবারেই আলাদা।

এই পতাকার আইকন পোস্ট করেই বিপাকে পড়েছেন তিনি। ছবিটি দিয়ে তিনি লিখেছেন, “আমাদের অধিকারই আমাদের শক্তি। সবাই বেরিয়ে গিয়ে ভোট দিন। সুস্থ ও সুন্দর ভবিষ্যৎ গড়ার জন্য সকলের সমর্থন প্রয়োজন।” এর পরেই প্যারাগুয়ের পতাকার আইকন দিয়ে ফেলেন তিনি।

সেই ছবিটি অন্তত ২০০ বার রিটুইট হয়েছে। লাইক পড়েছে হাজার খানা। যদিও পরে তিনি ভুল বুঝতে পেরে পোস্টটি ডিলিট করে নতুন করে ভারতের পতাকা দিয়ে একটি ছবি পোস্ট করেন। কিন্তু পুরনো ভুল পোস্টটি তত ক্ষণে ভাইরাল। উঠেছে সমালোচনার ঝড়। কেউ জানতে চেয়েছেন রবার্ট প্যারাগুয়েতে ভোট দিলেন কি না। কেউ বা জানতে চেয়েছেন, তিনি প্যারাগুয়োর বাসিন্দা হলেন কি না।

পরে নতুন ছবি দেওয়া নতুন পোস্টটি পুরনো ভুল খানিকটা সামাল দেয়।

দেখুন নতুন সেই পোস্ট।

Comments are closed.