রবিবার, অক্টোবর ২০

মধ্যস্থতা নয়, ইমরান আর মোদী কথা বলে কাশ্মীর বিতর্ক মিটিয়ে নিন, চান ট্রাম্প

দ্য ওয়াল ব্যুরো : কিছুদিন আগেই কাশ্মীর নিয়ে মধ্যস্থতা করতে চান বলে বিতর্ক সৃষ্টি করেছিলেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। কিন্তু শুক্রবার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে ফোনে তিনি বললেন, কাশ্মীর নিয়ে যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে, তা ভারত ও পাকিস্তানকে দ্বিপাক্ষিক আলোচনার মাধ্যমে মিটিয়ে নিতে হবে। তিনি আর নিজে মধ্যস্থতা করার কথা বলেননি।

গত জুলাই মাসে ইমরান আমেরিকা সফরে যান। তাঁর সঙ্গে যৌথ সাংবাদিক বৈঠকে ট্রাম্প বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আমাকে কাশ্মীর নিয়ে মধ্যস্থতা করতে বলেছেন। ভারত থেকে সঙ্গে সঙ্গে ট্রাম্পের মন্তব্যের বিরোধিতা করা হয়। ভারতের বিদেশ মন্ত্রক জানায়, কাশ্মীর বিতর্ক একমাত্র পাকিস্তানের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক আলোচনার মাধ্যমেই মিটতে পারে। যদি পাকিস্তান সন্ত্রাসবাদে মদত দেওয়া বন্ধ করে তবেই আলোচনা সম্ভব।

এর কিছুদিন পরে ট্রাম্প ফের বলেন, ভারত ও পাকিস্তান চাইলে তিনি কাশ্মীর নিয়ে মধ্যস্থতা করতে পারেন। কিন্তু শুক্রবার আমেরিকার বিদেশ দফতর থেকে বলা হয়েছে, ভারত ও পাকিস্তান সরাসরি কথা বলে কাশ্মীর সমস্যা মিটিয়ে নিক। আমেরিকা উভয় পক্ষকে সাহায্য করতে তৈরি। বিদেশ দফতরের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, প্রেসিডেন্ট মনে করেন, জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে ভারত ও পাকিস্তানের সম্পর্কে উত্তেজনা কমানো জরুরি।

ইমরানের আমেরিকা সফর সম্পর্কে হোয়াইট হাউসের মুখপাত্র হোগান গিডলে মন্তব্য করেন, তিনি এদেশে আসার পরে পাকিস্তানের সঙ্গে আমাদের দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও দৃঢ় হয়েছে। কিন্তু ট্রাম্পের মধ্যস্থতার প্রস্তাব নিয়ে হোগান কিছু বলেননি। এর আগে ইমরান বলেছিলেন, তিনি ট্রাম্পের মধ্যস্থতায় রাজি। পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কুরেশি জানান, আমাদের প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপুঞ্জের নিরাপত্তা পরিষদে সব স্থায়ী সদস্য দেশগুলির সঙ্গে কথা বলেছেন। তিনি জানিয়েছেন, কাশ্মীরে সম্প্রতি যা ঘটছে, তা এই অঞ্চলে শান্তিভঙ্গ করবে।

Comments are closed.