শনিবার, মে ২৫

ধেয়ে আসছে সাইক্লোন ফেনি! উপকূল জুড়ে কড়া সতর্কতা জারি, শহরের কপাল শুকনোই

দ্য ওয়াল ব্য়ুরো: ফের ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড়! আবহবিদেরা তার নাম দিয়েছেন, ফেনি৷ সতর্ক করা হয়েছে, শুক্রবারই চেন্নাই-সহ তামিলনাড়ুর উপকূলে আছড়ে পড়তে চলেছে এটি। সঙ্গে হতে পারে ভারী বৃষ্টিপাত।

আবহাওয়া বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ তৈরি হওয়ায় এই ফেনি নামের সাইক্লোনটি তৈরি হয়েছে। এই সাইক্লোন ঝড়ের গতিবেগ ঘণ্টায় ১১৫কিলোমিটার পর্যন্ত হতে পারে বলে জানাচ্ছে ইন্ডিয়ান মেটেরিওলজিক্যাল ডিপার্টমেন্ট৷ তাই ইতিমধ্যেই উপকূলীয় এলাকায় কড়া সতর্কতা জারি করা হয়েছে৷

যতটা আশঙ্কা করা হচ্ছে, ততটাই শক্তি নিয়ে ফেনি সাইক্লোনের আবির্ভাব ঘটলে, গত ছ’মাসে এই নিয়ে দ্বিতীয় বার এই পরিস্থিতির মুখে পড়তে চলেছে তামিলনাড়ু৷ গত বছর নভেম্বরেই দক্ষিণ উপকূলে ঘূর্ণিঝড় গাজা আছড়ে পড়েছিল৷ ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছিল।

এ বার আগে থেকে আশঙ্কা করেই পর্যটক থেকে মৎস্যজীবী সকলের জন্যই সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে, যাতে সমুদ্রের ধারেকাছে কেউ না যায়৷ এবারও ফেনির জন্য বেশ কিছু ক্ষয়ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে৷

আবহাওয়া দফতরের রিপোর্টে বলা হয়েছে, আগামী ২৪ ঘণ্টায় ঝড় ঘনীভূত হবে। তার পরে এই সাইক্লোনের জেরে তামিলনাড়ু ও শ্রীলঙ্কায় ব্যাপক বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। সঙ্গে বজ্র-বিদ্যুৎসহ ঝড় হবে।

চেন্নাইয়ের রিজিওনাল মেটিরিওলজিক্যাল সেন্টারের ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল এস বালাচন্দ্রন বলেন, ফেনি ঝড় উপকূলের পাশ দিয়ে চলে যাবে অথবা কিছুটা দূর দিয়ে যাবে। কতটা দূর দিয়ে এই সাইক্লোনটি যাবে, তার উপর নির্ভর করবে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ এবং ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ।

তবে এর মধ্যে ক্রমেই চড়ছে কলকাতার তাপমাত্রার পারদ। আলিপুর আবহাওয়া দফতর আগেই জানিয়েছিল, শহরের তাপমাত্রা পৌঁছতে পারে ৩৯ ডিগ্রির কাছাকাছি। স্বাভাবিকের থেকে বৃদ্ধি পেয়েছে সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন তাপমাত্রা দু’টোই। সঙ্গে অস্বস্তি বাড়িয়েছে আর্দ্রতা।

টানা কয়েক দিন এমনই গরম চলবে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। দফতরের সহ-অধিকর্তা সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “মধ্যপ্রদেশ, গুজরাট, রাজস্থান, বিদর্ভের বিভিন্ন অংশে তাপপ্রবাহ চলবে। ফলে উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে যে গরম বাতাস পূর্ব ভারতের দিকে আসবে, তার প্রভাব পড়বে।” সেই কারণেই গরম বাড়বে।

অর্থাৎ ফেনির কোনও প্রভাব এ শহরে এসে পৌঁছবে না বলেই জানাচ্ছেন তাঁরা। তবে পশ্চিমের কয়েকটি জেলায় তাপমাত্রা বৃদ্ধির পাশাপাশি ঝড় বা স্বস্তির বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। কিন্তু কলকাতা শহরের কপালে ছিটেফোঁটাও সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছেন আবহাওয়া-কর্তারা।
Shares

Comments are closed.