শুক্রবার, জুলাই ১৯

অনেক সেতুই বিপজ্জনক, উল্টোডাঙা কাণ্ডের পরে বড় সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য

দ্য ওয়াল ব্যুরো: টনক নড়ল উল্টোডাঙা কাণ্ডের পরে। মাঝেরহাট সেতু ভেঙে পড়ার পরেও জোড়াতালি দিয়ে চালানোর চেষ্টা হয়েছে। পিডব্লুডি-র ইঞ্জিনিয়রদের নিয়েই সেতু দেখভালের কাজ চালিয়ে নেওয়া হয়েছে এতদিন। কিন্তু আর তা নয়। এবার শুধু সেতু দেখাভালের জন্যই ২১টি পদ তৈরি করল রাজ্য সরকার। শীঘ্রই এই সব পদে ইঞ্জিনিয়র নিয়োগ করা হবে।

ইতিমধ্যেই এই নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে। সেই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, শুধুমাত্র ব্রিজের স্বাস্থ্য দেখভালের জন্য ‘ব্রিজ ইন্সপেকশন অ্যান্ড মনিটরিং সেল’ গঠন করা হবে। সেই সেলে বিভিন্ন পদের ২১ জন ইঞ্জনিয়র নিয়োগ করা হবে। শুধুমাত্র পিডব্লডির হাতে থাকা সেতুর মধ্যে ৯৫টিই বিপজ্জনক। মোট ৭৩৮টি সেতুর অবস্থাও খারাপ। এতদিন পিডব্লুডির ২১ জনের একটি টিম সেতু ও রাস্তাঘাটের স্বাস্থ্যে নজরদারীর কাজ করত। এখন শুধুমাত্র সেতুর হাল দেখতেই ইঞ্জিনিয়র নিয়োগ করা হবে। রাজ্য সরকার সেজন্য ৪ জন সুপারিটেনডেন্ট ইঞ্জিনিয়ার, ৩ জন এক্সিকিউটিভ ইঞ্জিনিয়ার ও
১৪ অ্যাসিস্ট্যান্ট ইঞ্জিনিয়ার নিয়োগ করবে। এই সেল চিফ ইঞ্জিনিয়ার হেডকোয়াটারের অধীনে কাজ করবে।

মাঝেরহাট সেতু ভেঙে পড়ার পর থেকেই চিন্তা তৈরি হয়। এবার উল্টোডাঙা ওভারব্রিজে বিপজ্জনক ফাটল দেখা দেওয়ার পরে সেই চিন্তা আরও বেড়েছে। পিডব্লুডির এক কর্তা জানিয়েছেন, এখন পূর্ত বিভাগের হাতে রয়েছে মোট ১৭৪৯টি সেতু। এর মধ্যে ৭৩৮টিই বেহাল। বিভিন্ন জেলায় ৯৫টির অবস্থা রীতিমতো বিপজ্জনক। সেগুলির রক্ষণাবেক্ষণে এখনই উদ্যোগী না হলে যে কোনও মুহূর্তে বড় বিপদ ঘটতে পারে। কিন্তু দফতরের হাতে পর্যাপ্ত ইঞ্জিনিয়র নেই। তাই যত দ্রুত সম্ভব নতুন ইঞ্জিনিয়র নিয়োগের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

Comments are closed.