বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ১৯

মা-মেয়ের তুমুল ঝগড়া! ১৯ বছরের মেয়ের মাথায় পাথর মেরে খুন করলেন মা!

দ্য ওয়াল ব্যুরো: পারিবারিক অশান্তির জেরে ১৯ বছরের মেয়ের মাথায় পাথর মেরে খুন করার অভিযোগ উঠল তাঁর মায়ের বিরুদ্ধে! পুলিশ জানিয়েছে, মঙ্গলবার পুণের এই ঘটনায় অভিযুক্ত মা, ৩৪ বছরের সঞ্জীবনী বোভাতে-কে গ্রেফতার করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, পুণের প্রগতিনগর এলাকার বাসিন্দা, ১৯ বছরের রুতুজা গত বছর এক যুবকের সঙ্গে বাড়ি থেকে পালায়। প্রেমের সম্পর্ক ছিল তাঁদের মধ্যে। সেই যুবক অন্য জাতের হওয়ায়, রুতুজার বাড়ি থেকে মেনে নেওয়া হয়নি তাঁকে। তাই বাড়ির অমতেই পালিয়ে গিয়ে বিয়ে করেন তাঁরা। বিয়ের পরে আর্থিক অবস্থা খুব একটা ভাল ছিল না তাঁদের।

ক্রমাগত সাংসারিক অশান্তির জেরে কয়েক মাসের মধ্যে বাড়ি ফিরে আসেন রুতুজা। তার পরে তাঁকে ফের বুঝিয়েসুঝিয়ে সংসারে ফেরত পাঠানোর চেষ্টাও করেন তাঁর বাবা-মা। কিন্তু রুতুজার স্বামী রাজি হননি তাঁকে বাড়ি ফেরাতে। তাঁকেও রাজি করানোর চেষ্টা করেন রুতুজার বাবা-মা। কিন্তু লাভ হয়নি।

এই নিয়েই বাবা-মায়ের সঙ্গে প্রায় রোজই ঝগড়াঝাঁটি লেগে থাকত রুতুজার। বাড়ছিল সাংসারিক অশান্তিও। পারিবারিক সূত্রের খবর, রুতুজা তাঁর মা-বাবাকে দায়ী করতেন, তাঁরা তাঁকে ফেরানোর যথেষ্ট উদ্যোগ নিচ্ছেন না বলে। অন্য দিকে রুতুজার বাবা-মায়ের ক্ষোভ ছিলই, তাঁদের অমতে পালিয়ে গিয়ে বিয়ে করা নিয়ে।

পুলিশ জানিয়েছে, মঙ্গলবারও সকাল থেকে এমনই অশান্তি চলছিল। মায়ের সঙ্গে তুমুল তর্ক করছিলেন রুতুজা। এমন সময়েই আচমকা মেয়ের মাথায় একটি ভারী পাথর দিয়ে আঘাত করে বসেন তাঁর মা। লুটিয়ে পড়েন রুতুজা। রক্তে ভেসে যায় চার পাশ। সঙ্গে সঙ্গে রক্তাক্ত অবস্থায় তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে, মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকেরা।

Comments are closed.