বুধবার, মার্চ ২০

পাকিস্তানের থেকে কেড়ে নেওয়া হল ‘পছন্দের দেশ’-এর তকমা, ডাকা হল রাষ্ট্রদূতকেও

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কাশ্মীরের পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার ঘটনায় পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূতকে ডেকে পাঠাল ভারত। বৃহস্পতিবার ঘটনাটি ঘটার পরেই সেনামৃত্যুর তীব্র নিন্দা করেছে নয়াদিল্লি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী থেকে শুরু করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং জানিয়ে দিয়েছেন, এই জঙ্গি হামলার সঙ্গে জড়িত কাউকে রেয়াত করা হবে না।  অপরাধীদের যোগ্য জবাব দেবে  সরকার। এর পরে, আজ শুক্রবার, পাকিস্তানের রাষ্ট্রদূত সোহেল মাহমুদ কে ডেকে পাঠান ভারতের বিদেশ সচিব বিজয় গোখলে।

শুক্রবার সকালে প্রধানমন্ত্রী মোদীর ডাকা বৈঠকে আলোচনা চলাকালীন এই ঘটনার বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ করেছেন বিজয়। এর পরেই ডেকে পাঠানো হয়েছে রাষ্ট্রদূতকে। আর শুধু রাষ্ট্রদূতকে ডেকে পাঠানোই নয়, সূত্রের খবর, কূটনৈতিক ভাবেও পাকিস্তানকে বিপাকে ফেলার কাজ শুরু করেছে ভারত।

পাকিস্তানকে দেওয়া ভারতের ‘মোস্ট ফেভার্ড নেশন’এর তকমা ইতিমধ্যেই ফিরিয়ে নিয়েছে দিল্লি। হামলার পরের দিন বৈঠকে বসে নিরাপত্তা বিষয়ক ক্যাবিনেট কমিটির বৈঠকেই এই তকমা ফিরিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে আলোচনা হয়। পরে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অরুণ জেটলি ভারতের এই সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করে দেন। জেটলি আরও জানান, শুধু তকমা ফিরিয়ে নেওয়া নয়, পাকিস্তানের বিরুদ্ধে আরও যা যা দরকার সবই করবে কেন্দ্রীয় বিদেশ মন্ত্রক।

তবে কূটনীতি যে পথেই চলুক, ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে নতুন করে তৈরি হওয়া উত্তেজনায় ইতিমধ্যেই বড়সড় প্রভাব পড়ল শেয়ার বাজারে। শুক্রবার শেয়ার বাজার খোলার পর থেকেই ওঠা-পড়া  চলছে ক্রমাগত। সামগ্রিক ভাবে আজ পড়ে গিয়েছে শেয়ার বাজার।

শুধু ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে উত্তেজনাই নয়, আমেরিকার বাজারের প্রভাবও এসে পড়েছে এ দেশের শেয়ার বাজারের উপরে। নতুন করে শক্ত ভিতের উপর দাঁড়িয়েছে মার্কিন অর্থনীতি। আর সেই কারণে এশিয়ার বিভিন্ন  সংস্থাকেই বড় চাপের মুখে পড়তে হয়েছে।

Shares

Comments are closed.