মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৩

অজানা সংকেত

শ্রী সদ্যোজাত

 

বড্ড বেশিই পাল্টে গেছো, আগে ইচ্ছে হলে ধরার কবলে ধরা দিতে ;

অসম্পৃক্ত ইচ্ছেগুলো,ইচ্ছে নদীর মতন ঢলঢলে নেই ;

সদ্য ফোটা রাতগুলো অগস্ত্য হতে চায় না,

রাজপথ গাছাড়া দেয় রাতের প্রতিমুখ ভাঙনে ;

নিয়ম করে জনগণ বাড়ছে শামুকের গর্ভে,

বে আব্রু চারাপথগুলো সেই বাড়ন্তেই ;

 

 

বাটালঙ্কা চোখদুটোতে ঘষাঘষি,একবিন্দু জল আনতে পারেনা ;

বিপন্ন আকাশ ফিরে আসতে চায় বিষণ্ণ পথেই,

অবাধ্য ডানারা শুনে ও শোনে না ;

ব্যস্ত শহর ভাঙা রাস্তাগুলি আবারো জুড়েছে তোমার বুকের মাটিতেই ;

 

প্রতিদিনের সমাবেশে তুমি ক্লান্ত ছিন্নরূপ,  দু দুটো হাত রাখবো কোথায় ? নষ্ট স্বরূপ ;

রাস্তার একধার বেয়ে সরীসৃপের হাওয়া, গলিগালা দিয়ে মেপে মেপে আসা যাওয়া ;

 

সোনার থেকেও সাংঘাতিক কিছু প্রাপ্তি ;

ছাদে ফাটলের আঁকিবুকি, রঙের প্রলেপ ভাঙা কার্নিশে ;

প্রতিশব্দরা ভাঙা ভাঙা গোধূলি তৈরী করে বেঁচে থাকার সংঘর্ষে সামিল ;

 

প্রসাদ বাউল প্রসাদী ধরেছে,

আকাশে আকাশে সঙ্গম হবে আর এক মহাকাশে ;

অপেক্ষা অপেক্ষা তারা একতারা জুড়ে অপেক্ষা, এক আকাশ মাশুল দিতে হবে ;

 

আকাশ ছুঁতে পারিনা, পাড় ঘেঁষে সারি সারি অবয়ব গড়ার নির্দেশিকা ;

বিশ্রাম কক্ষে ভালবাসার স্তন ঢাকা মুখ,

রাশিরাশি অশালীন ঠোঁটের পুষ্টি বিকলঙ্গতা ;

সমকালীন বিরোধের পেটভরা অসুখ ;;

 

Shares

Leave A Reply