সোমবার, মে ২৭

বারাণসীর পাশাপাশি পুরী থেকেও কি প্রার্থী হচ্ছেন মোদী? জল্পনা

দ্য ওয়াল ব্যুরো : ২০১৪ সালে দু’টি কেন্দ্র থেকে প্রার্থী হয়েছিলেন বিজেপির তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী নরেন্দ্র মোদী। উত্তরপ্রদেশের বারাণসী ও নিজের রাজ্য গুজরাতের ভদোদরা। দু’টি আসনে জিতে তিনি বারাণসী কেন্দ্রটি রেখে দেন। অপর আসন থেকে পদত্যাগ করেন। ২০১৯-এর নির্বাচনের দিন ঘোষণার পরে একটি সূত্রে শোনা গিয়েছে, এবারও দু’টি কেন্দ্রে প্রার্থী হতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। বারাণসীর পাশাপাশি তিনি নাকি আর এক তীর্থস্থান পুরী থেকে দাঁড়াবেন। যদিও বিজেপি থেকে বলা হয়েছে, মোদী বারাণসী ছাড়া অপর কোনও কেন্দ্র থেকে দাঁড়ানোর কথা ভাবছেন না।

সম্প্রতি মোদীকে এক সংবাদ সংস্থা থেকে প্রশ্ন করা হয়েছিল, আপনি কি ওড়িশার কোনও কেন্দ্র থেকে দাঁড়ানোর কথা ভাবছেন? তিনি সরাসরি হ্যাঁ বা না বলেননি। শুধু বলেছেন, সাংবাদিকরা এই নিয়ে জল্পনা-কল্পনা করতে থাকুন। তাঁদেরও তো কিছু কাজ চাই। বিজেপির সংসদীয় বোর্ড চায়, মোদী ফের বারাণসী থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করুন। কিন্তু গতবারের মতো বারাণসীর পাশাপাশি অপর কোনও কেন্দ্র থেকে তিনি দাঁড়াবেন কিনা, দ্বিতীয় কেন্দ্র হিসাবে পুরীকেই বেছে নেবেন কিনা, তা নিয়ে মুখ খুলতে চাইছেন না বিজেপির শীর্ষ নেতারা।

গতবার বারাণসীতে মোদীর প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন আম আদমি পার্টির অরবিন্দ কেজরিওয়াল। কংগ্রেসের প্রার্থী ছিলেন অজয় রাই। নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী কেজরিওয়ালকে বিপুল ভোটে হারিয়েছিলেন মোদী। পর্যবেক্ষকদের মতে, বিজেপির মধ্যে নিশ্চয় মোদীকে ওড়িশা বা পূর্বাঞ্চলের অপর কোনও রাজ্য থেকে প্রার্থী করার চিন্তাভাবনা চলছে। গেরুয়া ব্রিগেডের ধারণা, তিনি প্রার্থী হলে সংশ্লিষ্ট রাজ্যে তাদের সংগঠন শক্তিশালী হবে।

২০১৪ সালে উত্তরপ্রদেশ থেকে মোদী প্রার্থী হওয়ার পরে রাজ্যের ৮০ টি লোকসভা কেন্দ্রের ৭১ টিতে জয়লাভ করেছিল কংগ্রেস। উত্তরপ্রদেশে সম্প্রতি উপনির্বাচনে পরাজয় হয়েছে বিজেপির। রাজস্থান, ছত্তিসগড় ও মধ্যপ্রদেশের মতো রাজ্যগুলিও তাদের হাতছাড়া হয়েছে। বিজেপি নেতৃত্বের ধারণা, ওড়িশা, পশ্চিমবঙ্গ ও পূর্ব ভারতের কয়েকটি রাজ্যে তাঁদের সংগঠন বাড়ানোর সুযোগ আছে। ওড়িশা ও পশ্চিমবঙ্গে গত কয়েকটি নির্বাচনে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে কংগ্রেস।

একটি সূত্রে খবর, বিজেপির মুখপাত্র সম্বিত পাত্র পুরী থেকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চান। বিজেপির আরও বেশ কয়েকজন মুখপাত্র চান লোকসভা নির্বাচনে প্রার্থী হতে। চলতি সপ্তাহেই বৈঠকে বসছে বিজেপির কেন্দ্রীয় নির্বাচনী কমিটি। সেই বৈঠকেই প্রার্থীদের নাম চূড়ান্ত হবে।

Shares

Comments are closed.