Latest News

Turtuk: রুক্ষ-শুষ্ক লাদাখের কোলে ঝলমল করছে রঙিন এক গ্রাম, ভারতবর্ষ শেষ হয়েছে এখানেই

on May 19, 2022 - Last Updated May 19, 2022

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ভারতের শেষ প্রান্তের গ্রাম তুরতুক (Turtuk)। লাদাখের নুব্রা ভ্যালির শেষে, শায়ক নদীর পাশে হাজার চারেক মানুষের বাস এই গ্রামে। এই গ্রাম শেষ হলেই শুরু হয় পাকিস্তানের সীমানা। ধূসর, শুষ্ক লাদাখের কোলে এক ফালি সবুজ গ্রাম এই তুরতুক। গ্রামটি প্রাকৃতিকভাবেই ফুল দিয়ে সাজানো। যেদিকেই তাকাবেন সেদিকেই রং বেরঙের ফুলের সাজি গাছের ডালে ডালে আটকে আছে। গ্রামের বাইরের পাহাড় সাদা বরফে আচ্ছন্ন থাকলেও ভিতরে কিন্তু সবুজে সবুজ। অপরূপ প্রকৃতি যেন মুগ্ধতার ডালি সাজিয়ে রেখেছে।

বছর কয়েক আগেও এই গ্রামে (Turtuk) প্রবেশ একরকম নিষিদ্ধ ছিল। ২০১০ সাল নাগাদ গ্রামের দরজা পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়া হয়। অতীতে এই গ্রাম ছিল পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের অংশ। ভারত-পাক যুদ্ধের পর গ্রাম দখল করে নেয় ভারত। ফলে তুরতুকে ইন্দো-পাক সংস্কৃতির ছাপ সুস্পষ্ট।

লে বিমানবন্দর থেকে তুরতুকের দূরত্ব ২০৫ কিলোমিটার। সেখান থেকে ট্যাক্সি কিংবা বাসে চেপে তুরতুক (Turtuk) পৌঁছোনো যায়। গাড়ি ভাড়া করে নিজেও চালিয়ে নিয়ে যেতে পারেন। তুরতুক ঘুরতে গেলে দিন চারেক হাতে রাখা ভাল। ঘুরে দেখতে হবে জাতীয় হিমঘর, পোলো গ্রাউন্ড, ব্রোকপা দুর্গ, ওয়াটার মিল, মসজিদ, বৌদ্ধ মঠ, প্রাচীন বালতিক স্থাপত্য, পাহাড়ি ঝরনা, পাহাড়, নদী আরও কত কী!

দেখুন তুরতুকের (Turtuk) গ্যালারি।

  • 1/10

    গ্রামটি প্রাকৃতিকভাবেই ফুল দিয়ে সাজানো। যেদিকেই তাকাবেন সেদিকেই রং বেরঙের ফুলের সাজি গাছের ডালে ডালে আটকে আছে।

  • 2/10

    লে বিমানবন্দর থেকে তুরতুকের দূরত্ব ২০৫ কিলোমিটার। সেখান থেকে ট্যাক্সি কিংবা বাসে চেপে তুরতুক (Turtuk) পৌঁছোনো যায়। গাড়ি ভাড়া করে নিজেও চালিয়ে নিয়ে যেতে পারেন।

  • 3/10

    লাদাখের নুব্রা ভ্যালির শেষে, শায়ক নদীর পাশে হাজার চারেক মানুষের বাস এই গ্রামে। এই গ্রাম শেষ হলেই শুরু হয় পাকিস্তানের সীমানা।

  • 4/10

    গ্রামের বাইরের পাহাড় সাদা বরফে আচ্ছন্ন থাকলেও ভিতরে কিন্তু সবুজে সবুজ।

  • 5/10

    তুরতুক ঘুরতে গেলে দিন চারেক হাতে রাখা ভাল।

  • 6/10

    ধূসর, শুষ্ক লাদাখের কোলে এক ফালি সবুজ গ্রাম এই তুরতুক।

  • 7/10

    অপরূপ প্রকৃতি যেন মুগ্ধতার ডালি সাজিয়ে রেখেছে।

  • 8/10

    বছর কয়েক আগেও এই গ্রামে প্রবেশ একরকম নিষিদ্ধ ছিল। ২০১০ সাল নাগাদ গ্রামের দরজা পর্যটকদের জন্য খুলে দেওয়া হয়।

  • 9/10

    অতীতে এই গ্রাম ছিল পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের অংশ। ভারত-পাক যুদ্ধের পর গ্রাম দখল করে নেয় ভারত।

  • 10/10

    লে বিমানবন্দর থেকে তুরতুকের দূরত্ব ২০৫ কিলোমিটার। সেখান থেকে ট্যাক্সি কিংবা বাসে চেপে তুরতুক (Turtuk) পৌঁছোনো যায়। গাড়ি ভাড়া করে নিজেও চালিয়ে নিয়ে যেতে পারেন। তুরতুক ঘুরতে গেলে দিন চারেক হাতে রাখা ভাল। ঘুরে দেখতে হবে জাতীয় হিমঘর, পোলো গ্রাউন্ড, ব্রোকপা দুর্গ, ওয়াটার মিল, মসজিদ, বৌদ্ধ মঠ, প্রাচীন বালতিক স্থাপত্য, পাহাড়ি ঝরনা, পাহাড়, নদী আরও কত কী!

You might also like