মঙ্গলবার, অক্টোবর ১৫

যাঁর কাছে সকলে মন খারাপের ওষুধ খোঁজে, তিনি নিজে কেন কাঁদেন?

তাঁর সঙ্গে আড্ডা দেওয়া মানেই সময় বেরিয়ে যায় নিজের খেয়ালে।  এত ব্যস্ততার মাঝে কী করে সবকিছু সামলে ওঠেন তিনি? সকাল থেকে বেরিয়ে পড়েন সকালম্যান।  সকলকে ট্রাফিক আপডেট দিয়ে, গান শুনিয়ে, সামাজিক বিষয়ে সচেতন করে ঝোলা কাঁধে নিয়ে আবার পরের মিটিংয়ের জন্য বেরিয়ে পড়েন।  এভাবে একের পর এক কাজের লম্বা তালিকার পাশে টিক মারতে মারতে দুপুর গড়িয়ে যায় বিকেলের দিকে।  কোনও দিন সময় পেলে বাড়ি এসে খুব সামান্য খাওয়া এবং স্নান।  তারপর বিকেল থেকে কোনওদিন এই শ্যুট তো কোনওদিন ওই অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা।  আর একটা বা দুটো দিন ফাঁকা যদিও বা থেকে যায়, তাতে ‘ব্যান্ডেজ’-এর (তাঁর গানের ব্যান্ড) রিহার্সাল।  রাত তো ঘড়ি ধরে চলেও আসে তাঁর আনোয়ার শাহর ছ’তলার ফ্ল্যাটে।  বারান্দাতে দাঁড়িয়ে আর চাঁদ দেখার সময় থাকে না তখন।  ওই মুঠোফোনে কেউ হাত নাড়ে, তো কেউ মন খারাপের ওষুধ খোঁজে।  এগুলোর মাঝেই কিশোরী মেয়ের বাবা ঘুমিয়ে পড়েন, পরের দিন জেগে ছুটতে হবে বলে।  সত্যিই কি ঘুমোতে পারেন, সকলকে মন হাল্কা করার টোটকা দেওয়া এই ‘বেতার বাদশা’? হ্যাঁ বেতার বাদশাই বটে।  কারণ, তাঁর অভিনয়, সঞ্চালনা, গাায়ক সত্তা সব কিছুর চেয়েও রেডিয়ো তাঁর অনেক বেশি প্রাণের কাছের।

যদিও তিনিই আবার বলছেন, রেডিয়ো যতই করুন, মীরাক্কেল নিয়ে মানুষের আগ্রহের কোনও সীমা নেই।  এমন কী ‘সুলভ শৌচালয়ে’ পাশাপাশি দাঁড়িয়েও লোকজন তাঁকে পরের সিজ়ন নিয়ে জিজ্ঞাসা করেন।  তবে এই সীমাহীন ভালোবাসা, আগ্রহ তিনি উপভোগও করেন।  একটা সময় মুর্শিদাবাদের আজ়িমগঞ্জের আমবাগান, ইলেক্ট্রিসিটি ছাড়া মাটির ঘর থেকে এখন যখন নরম গদিতে রাতে শুতে যান, নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে করেন মীর আফসার আলি।  তাঁর কাজের জগতে তিনি ব্যস্ত রাখেন নিজেকে, কারণ তিনি মনে করেন তিনি ব্ল্যাক অ্যাণ্ড হোয়াইট নন, গ্রে বা ধূসর মানুষ।  সেই ব্যলেন্সও খোঁজেন কাজের মাঝেই।  আসলে উথ্থান পতন ছাড়া জীবন তো স্ট্রেট লাইন হয়ে যায়।  আর সেটার চেয়ে জীবনের আপস অ্যান্ড ডাউন তিনি বেশি পছন্দ করেন।  আর ভালোবাসার কথা জানতে চাইলে মীর বলছেন, ভালোবাসতে মানুষ ভালোবাসে।  তিনিও বহুবার তাই এই রাস্তাতেই হেঁটেছেন।  আর সকলকে হাসান যিনি, তিনি কখনও কান্নায় ভেঙে পড়েন কি? কী বলেছেন এই প্রশ্নের জবাবে…..দেখুন ‘ওপেন টু ওয়াল’-এর ভিডিয়োয়।  আড্ডায় মীরের মুখোমুখি হয়ে সেই উত্তরই খুঁজে পেলেন ‘দ্য ওয়াল’-এর মধুরিমা রায়

দেখুন ভিডিয়ো–

Comments are closed.