মঙ্গলবার, জানুয়ারি ২১
TheWall
TheWall

‘বিবেক নয়, আমিই প্রাইম মিনিস্টারের রোলে বেশি ভাল’, বললেন ‘ভার্সেটাইল’ অভিনেতা

Google+ Pinterest LinkedIn Tumblr +

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বিবেক ওবেরয়কে প্রাইম মিনিস্টারের পোস্টারে দেখে অনেকেই অবাক হয়েছেন। মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী ফডনবিস তো প্রথমে চিনতেও পারননি এই পোস্টারবয়কে। এমনকী জম্মু-কাশ্মীরের মুখ্যমন্ত্রী ওমর আবদুল্লাও দুঃখ প্রকাশ করে টুইট করে ফেলেছেন, যেখানে ‘দ্য অ্যাক্সিডেন্টাল প্রাইম মিনিস্টার’-এ অভিনয় করলেন অনুপম খের , সেখানে অন্তত প্রাইম মিনিস্টারের বায়োপিকে সলমন খান থাকতেই পারতেন! এত সমালোচনার মধ্যেই মুখ খুললেন এবার বর্ষীয়ান অভিনেতা পরেশ রাওয়াল।

দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বায়োপিক তৈরি হচ্ছে। আগের বছরেই এই কাজের সম্ভাবনার কথা বলেছিলেন পরেশ রাওয়াল। এই বছর সেই বায়োপিক পরিচালনা করছেন ওমাঙ্গ কুমার। এই পোস্টার সামনে আসার পরে যখন এত মতামত আসছে, তখনই কার্যত বোমা ফাটালেন পরেশ। বললেন, এই বায়োপিকে তাঁর চেয়ে ভাল আর কেউ করতেই পারেন না। বিবেকের বদলে তাঁকেই দেওয়া উচিত ছিল এই রোল। যদিও বিবেকের যে মেকআপ করা হয়েছে তাতে সত্যিই চেনা যাচ্ছে না যে আসলে মোদী না বিবেক, তবু পরেশের মতে তিনি যে ভাবে মোদীকে অনুভব করেন আর কেউ তা পারবেন না। তাই তিনিই এ ক্ষেত্রে সবচেয়ে ভালো ফুটিয়ে তুলতে পারবেন চরিত্রটি।

এই কথার সপক্ষে পরেশ আরও বলেছেন, তাঁর ছোটবেলায় ন’বছর বয়সের কথা মনে পড়ে যায়। দেশের প্রধানমন্ত্রী ছিলেন লালবাহাদুর শাস্ত্রী। দেশের সৈনিকদের চালের জোগানে যাতে অসুবিধে না হয়, তাই তখন সোমবার করে ভাত খেতেন না দেশবাসী। এই অনুরোধ ছিল তখনকার প্রধানমন্ত্রীরই। যা অনেক দেশবাসীর মতোই পরেশের মাও মেনে চলতেন। সেই অবস্থার সঙ্গে পরেশ আজকের মোদীজির গ্যাসের সাবসিডির সিদ্ধান্তের তুলনা করেছেন।

তাঁর মতে মোদীজি অত্যন্ত সৎ মানুষ তাই গরিবদের কথা ভাবেন। তিনি আরও বলেন, মোদীজিকে নিয়ে তিনি যে সিনেমা বানাবেন তাতে দেখানো হবে এক জন অতি সাধারণ মানুষ সামান্য অভিজ্ঞতা নিয়ে এসে কী ভাবে দেশ গড়ে তুলেছেন।কী ভাবে দেশ শাসন করেছেন শক্ত হাতে। পরেশের কথায়, “মোদীজি শুধু চেয়ার দখল করে আছেন ভাবলে ভুল হবে, তিনি দেশবাসীর কাছাকাছি পৌঁছেছেন, গ্রামবাসীদের দুঃখ কষ্ট কাছে গিয়ে বুঝেছেন। অনেক বেশি আবেগ দিয়ে মোদীজি দেশবাসীকে অনুভব করেছেন।”

পরেশ রাওয়ালকে জিজ্ঞেস করা হয়, দেশের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী সম্পর্কে তাঁর এতটা শ্রদ্ধা, ভাল লাগার কারণ কী? উত্তরে বর্ষীয়ান এই অভিনেতা জানান, তিনি মোদীকে এক বারই দেখেছিলেন পিএমওতে। সেখানেই মোদীর রাজনৈতিক দর্শন এবং দূরদর্শিতা তাঁকে মুগ্ধ করেছিল। এমনকী আমেরিকানরাও মোদীজির থেকেই পরামর্শ নেন কোনও কোনও সময়ে। কাজেই আগামী দিনে আবারও মোদীজি আসতে পারেন সিলভার স্ক্রিন জুড়ে। অন্তত পরেশ রাওয়াল তো সেই আশাই দেখাচ্ছেন সিনেপ্রেমীদের জন্য।

Share.

Comments are closed.