শনিবার, অক্টোবর ১৯

সন্ত্রাসবাদীদের সাহায্য করছে ভারত! ‘নথি’ পেশ করল পাকিস্তান

দ্য ওয়াল ব্যুরো : দীর্ঘদিন ধরে ভারত অভিযোগ করে এসেছে, পাকিস্তানের মাটিতে ঘাঁটি বানিয়ে ভারতে হামলা চালাচ্ছে জঙ্গিরা। এবার ভারতের বিরুদ্ধেই জঙ্গিদের মদত দেওয়ার পালটা অভিযোগ করল পাকিস্তান। জম্মু-কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা রদ করার পর থেকেই পাকিস্তান ভারতের কড়া সমালোচনা করে আসছে। কাশ্মীরে তথাকথিত মানবাধিকার লঙ্ঘন নিয়ে রাষ্ট্রপুঞ্জ ও অন্যান্য আন্তর্জাতিক সংস্থায় তারা সরব হয়েছে। কিন্তু চিন বাদে আর কাউকে পাশে পায়নি। এই অবস্থায় পালটা সন্ত্রাসবাদে মদত দেওয়ার অভিযোগ তুলে পাকিস্তান আন্তর্জাতিক মহলে ভারতকে কোণঠাসা করতে চাইছে বলে পর্যবেক্ষক মহলের ধারণা।

বিভিন্ন সূত্র থেকে জানা গিয়েছে, গত সপ্তাহেই ইসলামাবাদের পক্ষ থেকে দিল্লিতে বেশ কিছু নথি পাঠানো হয়েছে। তাতে দেখানো হয়েছে, একাধিক ভারতীয় এজেন্সি কীভাবে সন্ত্রাসবাদীদের সাহায্য করে। অভিযোগ, ভারতের মদতপুষ্ট জঙ্গিরা বেশ কিছুদিন ধরে পাকিস্তানের নানা অঞ্চলে হামলা চালিয়ে আসছে।

ভারতের তরফে এককথায় পাকিস্তানের অভিযোগ উড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। দিল্লির বক্তব্য, ভারতের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানোর জন্যই ওই ‘নথি’ তৈরি করেছে পাকিস্তান। পাকিস্তান নিজেই নিয়মিত জঙ্গিদের মদত দিয়ে থাকে। সেকথা আড়াল করার জন্যই তারা ভারতের বিরুদ্ধে পালটা অভিযোগ এনেছে।

কিছুদিন আগে ভারত থেকে অভিযোগ করা হয়, পাকিস্তান কর্তারপুর করিডোরকে ব্যবহার করে খলিস্তানি উগ্রপন্থীদের মদত দিচ্ছে। গত সপ্তাহে কর্তারপুর করিডোর নিয়ে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে বৈঠক হয়। তাতে ভারত প্রস্তাব দেয়, আগামীদিনে কর্তারপুর করিডোর দিয়ে যে শিখ তীর্থযাত্রীরা যাওয়া-আসা করবেন, তাঁদের সঙ্গে থাকবেন ভারতীয় অফিসাররা। কিন্তু পাকিস্তান এই প্রস্তাবে রাজি হয়নি। বৈঠকে এই বিষয়টি অমীমাংসিত থেকে গিয়েছে। তার পরেই পাকিস্তান থেকে ভারতের বিরুদ্ধে জঙ্গিদের মদত দেওয়ার অভিযোগ তোলা হয়।

চলতি মাসেই রাষ্ট্রসঙ্ঘের মানবাধিকার পরিষদ ও সাধারণ সভায় কাশ্মীর ইস্যু তুলবে পাকিস্তান। তার আগে ভারতের বিরুদ্ধে জঙ্গিদের মদত দেওয়ার অভিযোগ তুলেছে ইমরান প্রশাসন। অন্যদিকে ভারতের তরফে বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর কাশ্মীর নিয়ে বিভিন্ন দেশের সমর্থন আদায়ের চেষ্টা করছেন।

Comments are closed.