শুক্রবার, ডিসেম্বর ১৪

কথা বলার ক্ষমতা হারাতে পারেন সিধু, পাঁচ দিন বেড রেস্টের পরামর্শ

দ্য ওয়াল ব্যুরো : পাঞ্জাবের মন্ত্রী নভজ্যোৎ সিং সিধু যখন মুখ খোলেন তখনই শুরু হয় বিতর্ক। চিকিৎসকদের ধারণা, তিনি কিছুদিন বিছানায় শুয়ে বিশ্রাম না নিলে কথা বলার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলবেন। তাঁর ভোকাল কর্ড ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তাঁর গলাকে বিশ্রাম দিতে হবে।

সিধু কিছুদিন আগে পাকিস্তানে কর্তারপুর করিডোর প্রকল্পের উদ্বোধনে গিয়ে বিতর্কের সৃষ্টি করেছিলেন। তার কিছুদিন আগেই অমৃতসরের কাছে নিরঙ্কারি সমাগমে গ্রেনেড ছোঁড়ে পাকিস্তানের মদতপুষ্ট জঙ্গিরা। সিধু পাকিস্তানে যাওয়ার আগে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং তাঁকে প্রশ্ন করেন, তোমার যাওয়া কি একান্তই প্রয়োজন? তিনি বলেন, ব্যক্তিগত আমন্ত্রণে আমি যাচ্ছি। এরপরে অমরিন্দর সিং তাঁকে আর আটকাননি।

সিধু পাকিস্তানে গিয়েছিলেন সেদেশের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের আমন্ত্রণে। কর্তারপুর প্রকল্পের উদ্বোধনে ইমরান ও সিধু পরস্পরের প্রশংসা করেন। তাতে অসন্তুষ্ট হন ভারতের অনেকে। এছাড়া এক খলিস্তানি নেতার সঙ্গে সিধুর ছবি দেখা যায়। তিনি অবশ্য বলেন, পাকিস্তানে অনেকেই তাঁর সঙ্গে ছবি তুলেছে। সকলের পরিচয় তিনি জানেন না।

এর আগেরবার প্রধানমন্ত্রী পদে ইমরানের শপথের সময় পাকিস্তানে গিয়ে সিধু আর একদফা বিতর্কের জন্ম দিয়েছিলেন। সেবার দেখা গিয়েছিল, তিনি পাকিস্তানের সেনাপ্রধান কামার জাভেদ বাওয়েজাকে আলিঙ্গন করছেন। পাকিস্তানি বাহিনী নিয়মিত সীমান্তে সংঘর্ষবিরতি ভেঙে গুলি চালায়। জঙ্গিদের প্রশিক্ষণ দিয়ে ভারতে পাঠায়। সেই বাহিনীর সর্বাধিনায়ককে সিধু আলিঙ্গন করায় খুশি হননি অনেকেই।

শেষবার পাকিস্তান থেকে ফিরে সিধু আর একদফা বিতর্কের জন্ম দেন। হায়দরাবাদে এক সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেন, আমার ক্যাপটেন রাহুল গান্ধী। পাঞ্জাবে অমরিন্দর সিংকে ক্যাপটেন বলা হয়। এবিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে সিধু বলেন, অমরিন্দর সিং তো সেনাবাহিনীর ক্যাপটেন।

এরপরে কংগ্রেসেরই অনেকে বলেন, সিধু মুখ্যমন্ত্রীকে অসম্মান করেছেন। পাঞ্জাবের চারজন মন্ত্রী সিধুর পদত্যাগ দাবি করেন। এই বিতর্কের পাশাপাশি তিনি ১৭ দিন ধরে নানা রাজ্যে ঘুরে ভোটের প্রচার করেছেন। পরপর অন্তত ৭০ টি জনসভা করেছেন।

বৃহস্পতিবার তাঁর সরকারি মুখপাত্র এক বিবৃতিতে বলেন, কয়েকদিন ধরে টানা বিমানে অথবা হেলিকপ্টারে ভ্রমণ করার ফলে সিধু অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাঁর ভোকাল কর্ড ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তিনি কথা বলার ক্ষমতা হারিয়ে ফেলতে পারেন। চিকিৎসকরা তাঁকে তিন থেকে পাঁচ দিন বিছানায় শুয়ে বিশ্রাম নিতে বলেছেন।

সিধু এখন কোথায় আছেন বিবৃতিতে জানানো হয়নি। তবে বলা হয়েছে, ডাক্তাররা তাঁর পুরো শরীর পরীক্ষা করবেন। তাঁকে নিঃশ্বাস-প্রশ্বাসের ব্যায়াম করতে হবে। তাঁর ফিজিওথেরাপিও হবে।

Shares

Comments are closed.