শনিবার, মার্চ ২৩

পাক শ্যুটাররা ভিসা পেলেন না নয়াদিল্লি শ্যুটিং বিশ্বকাপে! আয়োজক দেশ ভারতের উপর ক্ষুব্ধ অলিম্পিক্স কমিটি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: নয়াদিল্লি শ্যুটিং বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করার জন্য ভারত থেকে ভিসা পেল না পাকিস্তানের দু’জন শ্যুটার। এর ফলে নয়াদিল্লি শ্যুটিং বিশ্বকাপ থেকে ২০২০ টোকিও অলিম্পিক্সে যোগ্যতা অর্জনের জন্য যে ১৬টি কোটার প্রস্তাব রেখেছিল আন্তর্জাতিক অলিম্পিক্স কমিটি, তা তুলে নেওয়া হল। একই সঙ্গে, পাকিস্তানি শ্যুটারদের ভিসা না দেওয়ার ‘অপরাধে’ ভারতের সঙ্গে আলোচনা করতে নারাজ বলে জানাল অলিম্পিক্স কমিটি।

কমিটির তরফে এ-ও ঘোষণা করা হয়, সরকারের তরফে নিশ্চিত অনুমতি না পেলে তারা এর পর থেকে আর কখনও ভারতকে কোনও গেমসের আয়োজন করতে দেবে না। কারণ সব ঠিক হয়ে যাওয়ার পরেও শেষ মুহূর্তে পাকিস্তানের দুই শ্যুটার খালিল আহমেদ ও জিএম বশির নয়াদিল্লির শ্যুটিং অলিম্পিক্সে অংশ নিতে পারছে না! কমিটির দাবি, “এটা নিয়মবিরুদ্ধ। দেশের কূটনীতি বা রাজনীতির প্রভাব এত বড় একটা গেমসে পড়া উচিত নয়। এটা তো অনেক আগে থেকে ঠিক করা। খেলার চোখে সকলেই সমান। আযোজক দেশই যদি এই বৈষম্য তৈরি করে খেলোয়াড়দের মধ্যে, তা হলে তা দুঃখজনক।”

সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া একটি বিবৃতিতে আন্তর্জাতিক শ্যুটিং স্পোর্টস ফেডারেশনের প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির লিসিন জানান, আইওসি সিদ্ধান্ত নিয়েছে, শ্যুটিং বিশ্বকাপের জন্য ভারত এই বার পাকিস্তান দলের ভিসা মঞ্জুর করতে না পারার কারণে ২০২০ টোকিও অলিম্পিক্সে পূর্ব প্রস্তাবিত কোনও কোটা থাকছে না।

নয়াদিল্লি শ্যুটিং বিশ্বকাপ থেকে আসন্ন টোকিও অলিম্পিক্সের ২৫ মিটার র‍্যাপিড ফায়ার পিস্তল ইভেন্টে সরাসরি যোগ্যতা অর্জনের জন্য ১৬টি কোটা নির্ধারিত হয়। কিন্তু বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করতে না পারার কারণে সরাসরি যোগ্যতা অর্জনের বিষয়ে বিরোধিতা করে পাকিস্তান নিজেই।

এই বিষয়ে অবশ্য আগেই আন্তর্জাতিক শ্যুটিং ফেডারেশনকে চিঠি পাঠায় পাকিস্তান। নয়াদিল্লি শ্যুটিং বিশ্বকাপ থেকে, অলিম্পিক্সের ২৫ মিটার র‍্যাপিড ফায়ার ইভেন্টে অলিম্পিকে সরাসরি যোগ্যতা অর্জনের প্রক্রিয়াটি তুলে নেওয়ার আবেদন করে তারা। পাকিস্তানের চিঠির জবাবে বুধবার জানানো হয়, ন্যাশনাল রাইফেল অ্যাসোসিয়েশন অফ পাকিস্তানের তরফ থেকে তাঁরা মেল পেয়েছেন। তাঁদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে আইওসি।

বৃহস্পতিবার সেই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতেই নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করে দিল আইওসি। পাকিস্তানের আবেদনের ভিত্তিতে শনিবার থেকে শুরু হতে চলা নয়াদিল্লি শ্যুটিং বিশ্বকাপ থেকে অলিম্পিক্স কোটা তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল তারা।

পুলওয়ামা কাণ্ডের পরে প্রাথমিক ভাবে টোকিও অলিম্পিক্সের কোয়ালিফাইং টুর্নামেন্ট অর্থাৎ শ্যুটিং বিশ্বকাপে পাকিস্তানি শ্যুটারদের ভিসা মঞ্জুর করার কথা জানায় ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। কিন্তু পরে সেই ভিসা হাতে না পাওয়ায় বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ করতে পারবেন না পাক শ্যুটাররা।

এই ব্যাপারে ন্যাশনাল রাইফেল অ্যাসোসিয়েশন অফ ইন্ডিয়ার প্রেসিডেন্ট রনিন্দর সিং জানান, “পাকিস্তানের শ্যুটারদের ভিসা মঞ্জুর করানোর জন্য আমারা সর্বোত ভাবে চেষ্টা করেছি। এর পরেও ভিসা মঞ্জুর না হওয়ার বিষয়টি দুঃখজনক। তবে টুর্নামেন্টের ফরম্যাট যাতে না বদলায়, সেই ব্যাপারে চেষ্টা করব আমরা।”

Shares

Comments are closed.