Latest News

লুডোর নেশা সর্বনাশা! সর্বস্ব খুইয়ে বাড়িওয়ালার কাছে নিজেকে বাজি ধরলেন তরুণী, তারপর…

দ্য ওয়াল ব্যুরো: জুয়ার নেশা সর্বনাশা, এ কথা কে না জানে। তবে লুডোর নেশাতেও যে এত বড় সর্বনাশ হতে পারে, তা আগে জানা যায়নি। রীতিমতো বাজি ধরে লুডো খেলতে খেলতে শেষমেশ নিজেকেই বাজি ধরে বসলেন তরুণী (woman bets self in Ludo)। তার পরে নিজেকে তুলেও দিলেন বিজয়ীর হাতে!

মহাভারতে দ্রৌপদীকে বাজি রেখে এভাবেই কৌরবদের সঙ্গে পাশা খেলেছিলেন যুধিষ্ঠির। কিন্তু এযুগের দ্রৌপদীর যুধিষ্ঠিরের দরকার নেই। তিনি নিজেই বাজি ধরলেন নিজেকে।

পুলিশ জানিয়েছে, উত্তরপ্রদেশের প্রতাপগড়ের দেবকলি এলাকার বাসিন্দা এক মহিলা, রেণু। তিনি লুডোর নেশায় রীতিমতো আসক্ত। বাড়ির মালিকের সঙ্গে তিনি নিয়মিত লুডো খেলতেন এবং বাজি ধরতেন। এই করে বহু বার হারার পরে বহু টাকা খুইয়েছেন তিনি। এমনকি বাড়ি ভাড়ার টাকাও মেটাতে পারেননি। শেষমেশ নিজেকে বাজি ধরে লুডো খেললেন। তিনি জিতলে টাকা পাবেন এবং ভাড়া দেবেন, হারলে তিনি নিজেই নিজেকে তুলে দেবেন মালিকের হাতে।

সেই দানেও হার হয় তাঁর। ফলে খেলার ‘শর্ত’ মেনেই বাড়িওয়ালার সঙ্গে থাকতে শুরু করেন তিনি। এদিকে এসব জানতে পেরে আকাশ থেকে পড়েন রেণুর স্বামী। তিনি কাজের সূত্রে রাজস্থানের জয়পুরে থাকেন। সেখান থেকে তিনি নিয়মিত টাকাও পাঠান স্ত্রীকে। কিন্তু ভাবতেও পারেননি, সেই সব টাকা লুডোর পিছনে খরচ করে ফেলছে রেণু! এমনকি বাড়ি ভাড়ার টাকাও দিতে পারছে না!

রেণু ঠিক করেছিলেন, শেষদানে লুডোয় জিতে সেই অর্থই ভাড়া হিসেবে দেবেন। কিন্তু হল উল্টোটা। তখন পাকে পড়ে, ঘটনার কথা স্বামীকে জানান রেণু। সব জানতে পেরে প্রতাপগড়ে ফিরে পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন রেণুর স্বামী। তবে তিনি এও জানান, তাঁর স্ত্রীরও নাকি খুব ইচ্ছে নেই বাড়ির মালিককে ছেড়ে সংসারে ফেরার! ফলে সব মিলিয়ে বিপাকে পড়েছেন তদন্তকারীরাও।

সাসপেন্ড বারাসতের ইনস্পেক্টর, অভিষেককে নিয়ে ‘কুরুচিকর’ মন্তব্য করেছিলেন তিনি

You might also like