Latest News

জ্যামে আটকে গাড়ি, অপেক্ষায় রোগীরা! ৩ কিমি দৌড়ে হাসপাতালে গেলেন চিকিৎসক

দ্য ওয়াল ব্যুরো: চিকিৎসক (doctor) হওয়ার সময় শপথ নিয়েছিলেন, রোগীর চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ আর কিচ্ছু নয়! শুধু মৌখিক শপথ নেওয়া নয়, তা আত্মস্থ করে ফেলেছিলেন এই ডাক্তারবাবু। তাই রোগীর (patient) প্রাণ বাঁচাতে এমন কাণ্ড ঘটালেন বেঙ্গালুরুর (Bengaluru) চিকিৎসক, যে, টুপি খুলে তাঁকে কুর্নিশ জানাচ্ছে নেটদুনিয়া।

ডাঃ গোবিন্দ নন্দকুমার। বেঙ্গালুরুর বাসিন্দা এই চিকিৎসক একজন গ্যাস্ট্রোএন্টারোলজি বিশেষজ্ঞ। হাসপাতাল যাওয়ার পথেই বেঙ্গালুরুর কুখ্যাত ট্র্যাফিক জ্যামে (traffic Jam) আটকা পড়েছিলেন তিনি। এদিকে হাসপাতালে যে তাঁর জন্য অপেক্ষা করে আছে রোগীরা! তিনি না গেলে অস্ত্রোপচারই হবে না। আর অস্ত্রোপচার শেষ না হওয়া পর্যন্ত না খেয়ে থাকতে হবে রোগীকে। অগত্যা গাড়ি ড্রাইভারের হাতে ছেড়ে দিয়ে ৩ কিলোমিটার পথ দৌড়েই সারজাপুরের মণিপাল হাসপাতালে পৌঁছালেন চিকিৎসক!

তিনি জানিয়েছেন, ওই রাস্তাটুকু যেতে গাড়িতে সাধারণত ১০ মিনিট লাগে। কিন্তু বৃষ্টির জন্য রাস্তায় জল জমে যাওয়ায় ট্রাফিক জ্যামের কারণে দীর্ঘক্ষণ রাস্তাতেই আটকে ছিলেন তিনি। ‘হাসপাতালে পৌঁছাতে দেরি হয়ে যাবে ভেবে আমি ক্রমশই ভয় পেয়ে যাচ্ছিলাম। জ্যাম কেটে রাস্তা পরিষ্কার হওয়া পর্যন্ত আমি আর অপেক্ষা করতে চাইনি। আমার রোগীরা আমার জন্য অপেক্ষা করেছিলেন। অস্ত্রোপচার না হওয়া পর্যন্ত তাঁদের কিছু খাবার খাওয়া বারণ। আমি আর দেরি করতে চাইনি,’ জানিয়েছেন চিকিৎসক নন্দকুমার।

‘যেহেতু আমার গাড়ির চালক ছিল, তাই গাড়ি ছেড়ে রেখে যেতে আমার কোনও সমস্যা হয়নি। আমি নিয়মিত জিম করি, তাই ছুটতেও আমার কোনও কষ্ট হয়নি। ৩ কিলোমিটার দৌড়ে আমি সঠিক সময়ে হাসপাতালে পৌঁছে গিয়েছিলাম,’ জানিয়েছেন তিনি।

তিনি আরও জানিয়েছেন, এটাই প্রথমবার নয়, এর আগেও বেঙ্গালুরু ট্রাফিক জ্যামের কারণে তিনি দৌড়ে কিংবা হেঁটে হাসপাতালে গেছেন। তবে সেসব ক্ষেত্রে তিনি এতটা ভয় পাননি, কারণ সেই হাসপাতালগুলিতে পরিকাঠামো অনেক ভাল ছিল এবং অনেক কর্মচারীও ছিল। ফলে রোগীদের কোনও সমস্যা হয়নি। কিন্তু সব হাসপাতালে পরিকাঠামো এত ভাল নয়। তাই এক্ষেত্রে দৌড়ানো ছাড়া উপায় ছিল না তাঁর।

চিকিৎসকের কীর্তিতে নেটদুনিয়া তাঁকে অভিবাদন জানালেও গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। বেঙ্গালুরুর রাস্তায় অ্যাম্বুলেন্সে যদি কোন মরণাপন্ন রোগী আটকে পড়েন, তাঁর কী হবে? প্রশ্ন ডাঃ নন্দকুমারের।

জন্মদিনের পার্টিতে ডিজে বক্স বাজাতে ‘হুকিং!’ শর্ট সার্কিটে দাদু ঠাকুমা সহ মৃত্যু ৩ জনের

You might also like